প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

সিনেমা বানাবেন, নাকি পর্ন ফিল্ম- পরিচালককে নায়িকা

   
প্রকাশিত: ৭:২৭ অপরাহ্ণ, ১৪ অক্টোবর ২০২২

ভারতীয় সিনেমার প্রতিটা ইন্ডাস্ট্রিতে কাস্টিং কাউচ নিয়ে চলছে সরব প্রতিবাদ। সেই প্রতিবাদের আঁচ লেগেছে ওপার বাংলার সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি টলিউডেও। কাস্টিং কাউচের বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন বাঙালি অভিনেত্রী সুকন্যা দত্ত। সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব তিনি।

তিনি অভিযোগ এনেছেন, পরিচলক বাপ্পার বিরুদ্ধে। কাজের নাম করেই অশালীন আচরণ করেছেন পরিচালক! নিজের সিনেমায় কাজের সুযোগ দেবেন এই বলেই তাঁকে মানসিক অত্যাচার করে গেছেন প্রতিনিয়ত। অবশেষে সেই নিয়েই মুখ খুললেন তিনি।

বাপ্পার নাম উল্লেখ করে সুকন্যা লিখলেন, এনাকে চিনে রাখুন। ইনি, বিরাট মাপের পরিচালক। উনার একটা শর্ট ফিল্ম যাতে আমায় অভিনয় করার কথা বলেন। বিভিন্ন কথা বার্তায় এটাই বুঝিয়েছেন, যে উনার সঙ্গে কাজ করতে গেলে আমায় বোল্ড ওয়ার্কশপ করতে হবে। আমি বুঝতে পারলাম না যে উনি সিনেমা বানাতে চান, নাকি পর্ন ফিল্ম! এমনকি বাপ্পার অফার রিজেক্ট করেন সুকন্যা। তারপরেই নানান কটু মন্তব্য জোটে তাঁর কপালে।

অভিনেত্রী হলেও নিজের মান সম্মান বজায় রাখতে জানেন সুকন্যা। বাপ্পার কথা শুনে রীতিমতো বিরক্ত সে। সোজা সাপটা জানিয়ে দেন, এসব পারবেন না। তাতেই কপালে জোটে সেক্সুয়ালী ডিসেবল একজন মহিলা। এখানেই শেষ নয়, অভিনেত্রী বলেন আরেক পরিচিত মুখ বাসব দত্ত চট্টোপাধ্যায় নাকি বোল্ড সিনে অভিনয় করেই অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন। ওয়াটস অ্যাপ ছাড়া কথা বলেন না।

টলি ইন্ডাস্ট্রির তাবড় তাবড় অভিনেত্রীরাও তাঁর কাছে কিছুই না। কোয়েল থেকে শুভশ্রী, রাজ চক্রবর্তী সকলেই তাঁর কাছে নস্যি। কাউকেই পাত্তা দেন না তিনি। সুকন্যা বলেন, উনি নাকি ফাটাফাটি সিনেমা বানান। কিন্তু দশটা জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার পরেও কি কোন পরিচালক অভিনেত্রীদের সঙ্গে এহেন কথা বলতে পারেন? দুটো মানুষের ইচ্ছেতে কিছু ঘটতেই পারে কিন্তু একজন মানুষ যখন ক্রমাগতই সেই বিষয়ে মানা করছে তখন একটু ভাবা উচিত।

একজন পরিচালক হয়েও কীভাবে এমন কাজ করতে পারেন সেই বিষয়ে একেবারেই চোখ কপালে তাঁর। সঙ্গেই বাপ্পাকে ধুয়ে দিলেন অভিনেত্রী। বললেন, মেয়েদের সঙ্গে নোংরামি করার জায়গা পান না? নিজেকে নিয়ে বড়াই করার এর জায়গা পাননি তিনি। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: