প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

৪৫ দিনের প্রধানমন্ত্রী, আজীবন কোটি টাকার বেশি পেনশন পাবেন ট্রাস

   
প্রকাশিত: ১০:৫৬ পূর্বাহ্ণ, ২২ অক্টোবর ২০২২

শপথ নেওয়ার ছয় সপ্তাহের মাথায় পদত্যাগ করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস। গত বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) তিনি এ পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন।মাত্র ৪৫ দিন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ট্রাস। তবে দেশটির আইন অনুসারে সাবেক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি প্রতিবছর ১ লাখ ১৫ হাজার পাউন্ড (ডলারে তা ১ লাখ ২৯ হাজার ডলার) করে পাবে ভাতা হিসেবে। যা বাংলাদেশি টাকায় ১ কোটি ২৯ লাখ ৩৯ হাজার টাকারও বেশি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, ব্রিটেনের পাবলিক ডিউটি কস্টস অ্যালাউয়েন্স (পিডিসিএ) আইনের আওতায় এই সুবিধা পাবেন। ১৯৯০ সালে এই আইনটি করা হয়। যাতে দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রীরা দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেওয়ার পরও সচ্ছলভাবে তাদের জীবন চালিয়ে নিতে পারেন।  যুক্তরাজ্য সরকারের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘এই ভাতা দেওয়া হয় যাতে তাঁরা তাদের সামাজিক দায়িত্বগুলো যথাযথভাবে পালন করতে পারেন। সব সাবেক প্রধানমন্ত্রীই পিডিসিএ সুবিধার আওতাভুক্ত হবেন।’ ২০১১ সালের আগে এই ভাতার পরিমাণ আরও একটু কম ছিল। পরে ২০১১ সালে তা সংশোধন করে প্রতিবছর ১ লাখ ১৫ হাজার পাউন্ড করে নির্ধারণ করা হয়।

এর আগে দলত্যাগের ঘোষণা দেওয়ার আগ মুহূর্তে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রীর অফিসের দরজার বাইরে সংবাদ সম্মেলনে ট্রাস স্বীকার করেছেন, তিনি দলের নেতৃত্বের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সময় যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা পূরণ করতে পারেননি। ট্রাস বলেছেন, ‘আমি অর্থনৈতিক ও আন্তর্জাতিক অস্থিতিশীলতার সময়ে ক্ষমতায় এসেছিলাম। পরিবার ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কীভাবে তাদের বিল পরিশোধ করবে তা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিল, ইউক্রেনে পুতিনের অবৈধ যুদ্ধ আমাদের পুরো মহাদেশের নিরাপত্তাকে হুমকির মুখে ফেলেছে এবং আমাদের দেশকে অনেক দিন ধরে নিম্ন অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির মধ্যে আটকে রাখা হয়েছে। এসব পরিবর্তনের জন্য আমি কনজারভেটিভ পার্টির সমর্থন পেয়ে নির্বাচিত হয়েছি। ….আমি স্বীকার করছি, যার জন্য দল আমাকে নির্বার্চিত করেছে, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আমি তা পূরণ করতে পারিনি।’

রেজানুল/সা.এ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: