জবি ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

   
প্রকাশিত: ১১:১৬ অপরাহ্ণ, ২৮ অক্টোবর ২০২২

সানাউল্লাহ ফাহাদ, জবি প্রতিনিধি: দীর্ঘ ১৯ বছর পর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এতে স্থান পেয়েছেন ২৮৩ নেতাকর্মী। বিশ্ববিদ্যালয় হওয়ার পর এটাই প্রথম কমিটি। সর্বশেষ কমিটি পূর্ণাঙ্গ হয়েছিল ২০০৩ সালে। বিভিন্ন সময়ে গুম হওয়া ৩ নেতাকে রাখা হয়েছে সহ-সভাপতি পদে। শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল সাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে চলতি বছর ১ জুলাই আসাদুজ্জামান আসলামকে সভাপতি ও সুজন মোল্লাকে সাধারণ সম্পাদক করে এক মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার শর্তে ছয় বছর পর জবি ছাত্রদলের কমিটি হয়। সংগঠনকে গতিশীল করার জন্য তার তিন মাস পরই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।

তবে এই পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে স্থান পেয়েছে গুম হওয়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের তিন কর্মী আসাদুজ্জামান রানা, মাজাহারুল ইসলাম রাসেল ও আল-আমিন। পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তারা সহ-সভাপতি হিসাবে মনোনীত হয়েছেন।

জানা যায়, ২০০৩ সালে সর্বশেষ ৮১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি পূর্নাঙ্গ হয়। দীর্ঘ ১৯ বছর পরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের পূর্নাঙ্গ কমিটি হয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন হামলা মামলার শিকারের ফলে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়নি দলটির।

শাখা ছাত্রদলের ২৮৩ সদস্য এ কমিটিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও একজন করে সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সহ ৫৪ জন সহ-সভাপতি, ৬৬ জন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, ৫৬ জন সহ-সাধারণ সম্পাদক, একজন সাংগঠনিক সম্পাদক, ৫৭ জন সহ সাংগঠনিক সম্পাদক, ২৭ জন বিভিন্ন সম্পাদক পদে এবং ১৮ জন সদস্য পদে স্থান পেয়েছেন। এ পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী পর্যন্ত স্থান পেয়েছে।

দীর্ঘদিন পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা দিয়ে শাখার সভাপতি আসাদুজ্জামান আসলাম বলেন, দীর্ঘ ১৯ বছরের শ্রমের ফসল হিসেবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বহুল কাঙ্ক্ষিত পূর্নাঙ্গ কমিটি উপহার দেওয়ায় আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও আগামীর অবশ্যম্ভাবী রাষ্ট্রনায়ক তারেক রহমানকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

গুম তিনজনকে কমিটিতে রাখার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘তারা বিভিন্ন সময়ে গুমের শিকার হয়েছেন। যেহেতু তারা আমাদের পার্টির সদস্য, সেই জায়গা থেকে তাদের সম্মানজনক সহ-সভাপতি পদে রাখা হয়েছে।’

শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সুজন মোল্লা বলেন, দেশনায়ক তারেক রহমানের নির্দেশে আমরা খুব দ্রুতই নিজেদের ঘুছিয়ে নিয়েছি। দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে যুগপৎ আন্দোলনে আমরা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিবো।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: