প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মোঃ এস হোসেন আকাশ

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁদাবাজি মামলায় ছাত্রলীগের সেক্রেটারি আরিফ বহিষ্কার

   
প্রকাশিত: ৪:৪০ অপরাহ্ণ, ১১ নভেম্বর ২০২২

কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ মিয়ার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও ছিনতাই মামলায় চার্জশিট প্রদান করেছে নিকলী থানা পুলিশ। নিকলী থানার এসআই ইকবাল হোসেন গেল ২৮ অক্টোবর আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন। এদিকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ মিয়াকে শৃঙ্খলা ভঙের দায়ে অব্যাহতি এবং কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় বিলুপ্ত করেছে জেলা ছাত্রলীগ।

মামলার এজাহার ও চার্জশিট সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাত প্রায় সাড়ে ১২টায় নিকলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ মিয়ার নির্দেশে অভিযুক্ত মনির হোসেন, সাইফুল ইসলাম দয়াল, রুবেল মিয়া, মো. হারুন, সোহেল মিয়া, সাদ্দাম হোসেন, নজরুল ও এস এম আকাশ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে উপজেলার ঘোড়াদিঘা আশ্রয়ণ প্রকল্পের বালু উত্তোলনের কাজে নিয়োজিত ড্রেজারে যায়। এ সময় ড্রেজারে ঘুমিয়ে থাকা তুষার, রায়হান ও সজিবদের ডেকে তুলে হুমকি দেয় এবং বলে তোদের মালিকের কাছে দাবীকৃত দুই লাখ টাকা চাঁদা না দিয়ে বালু উত্তোলন করতে পারবে না। তখন ড্রেজারে থাকা তুষার, রায়হান ও সজিবরা প্রতিবাদ করলে তাদের ওপর হামলা করা হয়।

এ সময় তাদের কাছে থাকা ৫০ হাজার টাকা, ৩টি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন ও ড্রেজারে থাকা ২শ’ লিটার তেলের ড্রাম একটি ট্রলারে নিয়া চলে যায়। এ সময় ৯৯৯ এর মাধ্যমে নিকলী থানা পুলিশ খবর পেয়ে অভিযুক্ত আসামি মনির, দয়াল, রুবেল ও ফারুককে আটক করে। তাদের বহনকারী নৌকা জব্দ করে। এ সময় অন্যান্য অভিযুক্ত আসামি নজরুল, আকাশ ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ মিয়া অপর একটি ছোট নৌকা নিয়ে কৌশলে পালিয়ে যায়।

পরে এজাহার নামীয় আসামিদের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীর ছায়ালিপি পর্যালোচনায় এবং ঘটনার পারিপার্শ্বিকতায় মামলার এজাহার নামীয় আসামি মনির হোসেন (২৮), সাইফুল ইসলাম দয়াল (৩৫), রুবেল মিয়া(২৮), ফারুক (৩৮), সোহেল মিয়া (২৮), সাদ্দাম হোসেন (২৫), নজরুল (৪৫), এস এম আকাশ (২৫) এবং তদন্তে প্রাপ্ত আসামি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ মিয়াদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রাথমিকভাবে সত্য বলে প্রমাণ হয় বলে চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়।

এ মামলায় প্রমাণিত অভিযুক্তদের সুষ্ঠু বিচার দাবী করেছে মামলার বাদী নিকলী উপজেলার দামপাড়া গ্রামের মৃত বিল্লাল হোসেনের ছেলে রাসেল মিয়া।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: