প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

সোহাগ মাতুব্বর

ভাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

শীঘ্রই উদ্বোধন হতে যাচ্ছে ভাঙ্গার মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র

   
প্রকাশিত: ৮:৪৩ অপরাহ্ণ, ১৭ নভেম্বর ২০২২

সারা দেশের ন্যায় ফরিদপুরের ভাঙ্গায় শীঘ্রই উদ্বোধন হতে যাচ্ছে দৃষ্টিনন্দন ভাঙ্গা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ৩ তলা বিশিষ্ট এই মসজিদে পুরুষের পাশাপাশি মহিলাদের নামাজের ব্যবস্থা রয়েছে। ইসলাম ধর্মের মূল শিক্ষা অর্জনের জন্য থাকবে লাইব্রেরি। এছাড়াও ইসলামি সংস্কৃতি চর্চার জন্য রয়েছে ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র।

দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ের ভাঙ্গা অংশের দৃষ্টিনন্দন গোলচত্ত্বরের পাশেই নির্মিত হচ্ছে এই মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র। তবে গোলচত্ত্বর ও মসজিদের সম্মুখে রাস্তার পাশে নির্মিত হচ্ছে অসংখ্য দোকানপাট ও অবৈধ স্থাপনা, যা মসজিদের সৌন্দর্য ও পরিবেশ কে করবে নষ্ট। এই বিষয়ে ভাঙ্গার নাগরিক সমাজের দাবি গোলচত্ত্বর ও মডেল মসজিদের সৌন্দর্য রক্ষায় এই সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা জরুরি।

প্রসঙ্গত বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সংস্কৃতি কেন্দ্র স্থাপন (১ম সংশোধিত) প্রকল্প ৮ হাজার ৭২২ কেটি টাকা ব্যায়ে এপ্রিল, ২০১৭ হতে ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত মেয়াদে বাস্তবায়নে অনুমোদিত হয়। সংশোধিত অনুমোদিত প্রকল্পের নকশা অনুযায়ী মডেল মসজিদের জন্য ৪০ শতাংশ জায়গার প্রয়োজন। জেলা পর্যায়ে ৪ তলা ও উপজেলার জন্য ৩ তলা এবং উপকূলীয় এলাকায় ৪ তলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতি কেন্দ্র নির্মানের ভিত্তিপ্রস্তাবের স্থাপন করা হয়েছে।

শ্রীঘ্রই সারা দেশে অবশিষ্ট মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র কাজ শেষ করা হবে। মডেল মসজিদ কমপ্লেক্সে নারী ও পুরুষদের পৃথক ওজু ও নামায আদায়ের সুবিধা, লাইব্রেরী গবেষনা ও দীনি দাওয়া কার্যক্রম, পবিত্র কুরআন হেফজ, শিশু শিক্ষ, অতিথিশালা, বিদেশী পর্যটকদের আবাসন, মৃতদেহ গোসলের ব্যবস্থা, হজ্জযাত্রীদের নিবন্ধন, প্রশিক্ষণ, ইমামদের প্রশিক্ষণ ইত্যাদি ব্যবস্থা রয়েছে। ইমাম-মুয়াজ্জিনের আবাসনসহ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য অফিসের ব্যবস্বতা রাখা হয়েছে।

এই বিষয়ে ভাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান এস.এম. হাবিবুর রহমান বলেন, আমরা উপজেলাবাসী প্রথমে ধন্যবাদ জানাই আমাদের কে এতো সুন্দর দৃষ্টিনন্দন মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র উপহার দেওয়ার জন্য। এই মসজিদে নির্মানের ফলে পুরুষের পাশাপাশি মহিলারাও নামাজ আদায় করতে পারবেন। এছাড়া যুব সমাজ ইসলামিক লাইব্রেরি থেকে ইসলামের মূল শিক্ষা গ্রহন করতে পারবে।

এই বিষয়ে ভাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আজিম উদ্দিন বলেন, বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র খুব শীঘ্রই উদ্বোধন করা হবে। মডেল মসজিদ নির্মাণের মূল উদ্দেশ্য যুব সমাজ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনা ও জঙ্গিবাগ রোধে এই মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র কাজ করবে। ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা ইসলামের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবেন। এছাড়া জাঙ্গীবাদের যে অপব্যাখ্যা দিয়ে থাকে কিছু মহল সেটিও রোধ করতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

তিনি আরো বলেন দেশের প্রথম ঢাকা মাওয়া ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে দৃষ্টিনন্দন ভাঙ্গা গোলচত্ত্বরে নির্মিত হচ্ছে এই দৃষ্টিনন্দন ভাঙ্গা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র। কিন্তু গোলচত্ত্বরের রাস্তার পাশ দিয়ে কিছু অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। আমরা ইতিমধ্যে সড়ক বিভাগের সাথে আলোচনা করেছি যেহেতু এই জায়গায় টা সড়কের আমরা তাদের কে বলেছি তারা অচিরেই এই সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করবেন। এবং উচ্ছেদ অভিযানে পাশাপাশি আমাদের উপজেলা প্রশাসনের সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: