প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

জয়ন্ত শিরালী জয়

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

গোপালগঞ্জে জনদুর্ভোগ কমাতে এলজিইডি’র ভ্রম্যমান সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ

   
প্রকাশিত: ২:২৭ অপরাহ্ণ, ২১ নভেম্বর ২০২২

সংস্কার ও মেরামতের মাধ্যমে সড়ককে ব্যবহার উপযোগী রেখে, জন দুর্ভোগ কমাতে কাজ করে যাচ্ছে গোপালগঞ্জ এলজিইডি’র বিশেষায়িত ভ্রাম্যমান টিম। জেলার সব উপজেলাতেই সড়কের ছোটখাটো খানা-খন্দ, পট হোল, প্যাচ রিপেয়ারিং, এজিং ভেঙে যাওয়া মেরামত করছে মোবাইল মেইনটেনেন্স।

সম্প্রতি সদর উপজেলার বেদগ্রাম-সিলনা সড়কে রক্ষণাবেক্ষণ কাজ পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেন জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা। এসময় তিনি বলেন, এই প্রক্রিয়ায় কাজ করলে সড়ক সব সময় ব্যবহার উপযোগি থাকে। নিয়মিত মেরামত যেমন সাশ্রয়ী, তেমনি সড়কের স্থায়িত্ব বাড়াতেও কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।
পরিদর্শনকালে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ এহসানুল হক, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুর রহমান, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নিতিশ চন্দ্র রায়, সদর উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ জাহিদুল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী রঞ্জন কুমার সাহা প্রমূখ।

গোপালগঞ্জ এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ এহসানুল হক জানান, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর রাজস্ব বাজেটের আওতায় গ্রামীণ, ইউনিয়ন ও উপজেলা পর্যায়ের সড়ককে নিয়মিত, সময়ান্তর, জরুরী এবং ভ্রাম্যমাণ রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে। এর মধ্যে মোবাইল মেইনটেনেন্স অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ। নির্বাহী প্রকৌশলীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে প্রতি জেলায় একটি করে টিম পরিচালিত হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, সদর দপ্তরের নিদের্শনায় মোবাইল টিমের মাধ্যমে ২০২২-২৩ অর্থ বছরে গোপালগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় এ পর্যন্ত প্রায় ৫০ কিলোমিটার পাকা সড়কের বিভিন্ন অংশে মেরামত করা হয়েছে। যান চলাচল স্বাভাবিক রেখে মেরামত কাজ করা হয় বলে মানুষের ভোগান্তি হয় না। এছাড়া কাজের সময় ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা, ট্রাফিক সিগন্যাল, ট্রাফিক কোন, সেফটি ভেস্টসহ প্রাথমিক নিরাপত্তা সমগ্রী ব্যবহার করা হয়।

মাঠ পর্যায়ে উপজেলা প্রকৌশলী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে মোবাইল মেইনটেনেন্স কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে বলেও জানান ওই প্রকৌশলী।

সালাউদ্দিন/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: