প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

রাস্তার ঝাড়ুদার থেকে আর্জেন্টিনা বধের নায়ক সৌদি কোচ রেনার্ড

   
প্রকাশিত: ২:৫৩ অপরাহ্ণ, ২৩ নভেম্বর ২০২২

ফ্রান্সের এক নিভৃত গ্রামে নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারে ১৯৬৮ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন হার্ভে রেনার্ড। শৈশব থেকেই ফুটবল ছিল তার ধ্যানজ্ঞান। ফলে একপর্যায়ে সফল কোচে পরিণত হন তিনি। গোল ডটকমের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে। তবে এতদূর আসার পথটা রেনার্ডের মোটেও মসৃণ ছিল না। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে সাফল্যের শিখরে আরোহন করতে হয়েছে তাকে। অভাব-অনটনে একসময় সংসার চালাতে ঝাড়ুদার হিসেবে কাজ করেছেন। বাস কন্ডাক্টার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

চলতি বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে ২-১ গোলে হারিয়ে গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়েছে সৌদি আরব। এ ইতিহাস সৃষ্টির নেপথ্য কারিগর রেনার্ড। এর আগে বিশ্বকাপে মরক্কো, বেলজিয়াম, মিসরকে হারায় সৌদি। ২০২২ আসরে দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নকে হারিয়ে বিশ্বমঞ্চে চতুর্থ জয় পেয়েছে তারা। আন্তর্জাতিক সংবাদমাদ্যমগুলো বলছে, বিশ্বকাপে এটিই তাদের সেরা অর্জন।

রেনার্ডের কোচিং ক্যারিয়ারেও যা সর্বোচ্চ সাফল্য। তবে অতীতেও এরকম সফল হয়েছেন তিনি। বিশ্বের একমাত্র কোচ হিসেবে দুটি ভিন্ন দেশের হয়ে আফ্রিকা কাপ অব নেশনস জিতেছেন এ ফরাসি কোচ। ফ্রেঞ্চ ক্লাব দ্রাগিনিয়াঁর হয়ে কোচিং পেশা শুরু করেন রেনার্ড। পরে ইংল্যান্ডের চতুর্থ ডিভিশন ক্লাবের দায়িত্ব নেন। সেসময় থেকেই ড্রেসিংরুমে তার ‘ম্যান ম্যানেজমেন্ট’ দক্ষতা আলোচনায় উঠে আসে।

মূলত জাম্বিয়ার কোচ হয়ে প্রকৃত চমক দেখান রেনার্ড। নিজের দ্বিতীয় মৌসুমেই কাপ অব নেশনসের ফাইনালে আইভরিকোস্টকে হারিয়ে দলটিকে শিরোপার সুবাস পাইয়ে দেন তিনি। এরপর আইভরিকোস্টের হয়েও একই শিরোপা জেতেন এ ফুটবল মস্তিষ্ক।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে মরক্কোর কোচ ছিলেন রেনার্ড। সেবার তার হাত ধরে ২০ বছর পর বিশ্বমঞ্চে খেলে আফ্রিকান দলটি। এরপর যোগদান করেন সৌদি আরবের ম্যানেজার হিসেবে। সাধারণত, বাছাইপর্বের গণ্ডি পেরিয়ে সৌদিকে বিশ্বকাপের টিকিট এনে দিতে তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

সেটা তো করেছেন-ই, বরং বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই করে নিয়েছেন রেনার্ড। এ পথে অবশ্য সেই দুঃসময়ের কথাগুলো ভুলে যাওয়ার কথা নয় তার। যেসময় সারারাত ঝাড়ুদার হিসেবে কাজ করতেন তিনি। আর সূর্য উঠতেই ছুটে যেতেন ফুটবল নিয়ে স্বপ্নপূরণ করতে। স্বপ্নের খোঁজে হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াতেন রেনার্ড। লিওনেল মেসিদের হারিয়ে কী সেই স্বপ্ন পূরণ হয়েছে? জবাবটা তিনিই দিতে পারবেন যুতসই।

যাহোক, তার অধীনে স্বপ্নের মতো বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে সৌদি আরব। সেটা নিশ্চিত করেই বলা যায়। তবে এখানেই থেমে থাকতে চান না তিনি। কাতারে আরও চমক দেখানোর অপেক্ষায় ফরাসি কোচ।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: