প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

কাতারে মেসি-রোনালদো গোল পেলেও ব্যর্থ নেইমার

   
প্রকাশিত: ১০:১০ অপরাহ্ণ, ২৫ নভেম্বর ২০২২

ছবি: সংগৃহীত

কাতার বিশ্বকাপই লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও নেইমার জুনিয়রের শেষ বিশ্বকাপ। মেসি এবং নেইমার আগেই ঘোষণা দিলেও রোনালদো এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেননি। তবে বয়সের খাতিরে সকলেই ধরে নিচ্ছেন রোনালদোরও এটি শেষ বিশ্বকাপ।

নিজেদের শেষ বিশ্বকাপের আসরে একটি করে ম্যাচ খেলে ফেলেছে আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল ও পর্তুগাল। ব্রাজিল ও পর্তুগাল নিজেদের ম্যাচে জয় তুলে নিলেও ব্যর্থ হয়েছে আর্জেন্টিনা। তাই এই দুই দলের তুলনায় বিশ্বকাপের নকআউটে যাওয়ার রাস্তাটা বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে আলবিসেলেস্তেদের।

এতকিছুর মাঝেও বড় কথা বর্তমান সময়ের সেরা ফুটবলারদের দুইজন নিজ নিজ ম্যাচে গোল পেয়েছেন। তবে তার কোনও দর্শনীয় ভঙ্গিতে কিংবা কোনও কারিকুরিতে নয়। উভয়েই গোল পেয়েছেন পেনাল্টি থেকে।

গতরাতে ব্রাজিল নিজেদের প্রথম ম্যাচে সার্বিয়ার বিপক্ষে রিচার্লিসন শোয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে। তবে ম্যাচে ব্রাজিলের গোল হতে পারত অন্তত ৫টি। যদি না ভিনিসিয়াস জুনিয়র, নেইমার, রাফিনহারা গোলগুলো মিস না করতেন।

এদিকে ব্রাজিলের জয়ের ম্যাচে সবচেয়ে বড় দুঃসংবাদ পেয়েছে দলটি। দলের সেরা তারকা নেইমার পড়েছেন গোড়ালির ইনজুরিতে। ধারণা করা হচ্ছে গ্রুপ পর্বে বাকি দুই ম্যাচ মিস করতে যাচ্ছেন তিনি। তবে ব্রাজিল দলের চিকিৎসক রদ্রিগো লাসমার জানিয়েছেন, নেইমারের ইনজুরি নিয়ে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। এজন্য আমাদের ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে। অর্থাৎ একদিন বা দুইদিন পরই জানা যাবে সে বিশ্বকাপে অনিশ্চিত কি না।

এদিকে একই অবস্থা আর্জেন্টাইন শিবিরে। আগামীকাল শনিবার (২৬ নভেম্বর) নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মেক্সিকোর মুখোমুখি হবে আলবিসেলেস্তেরা। তার আগে আর্জেন্টাইন শিবিরের বড় দুঃসংবাদ দলের অধিনায়ক ও সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসির ইনজুরি নিয়ে। দেশটির সংবাদমাধ্যম ‘মুন্ডো আলবিলেস্তে’ জানিয়েছে, মেসি পায়ের মাংসপেশিতে ব্যথায় ভুগছেন। তাই আগামীকালের ম্যাচে তাকে পাওয়া নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। তবে পর্তুগাল যুবরাজ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর আপাতত এমন কোনও সমস্যা নেই। তিনি পুরোপুরি সুস্থ আছেন।

ইমদাদ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: