প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

নিখোঁজের ২ দিন পর বাগানে মিলল প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ

   
প্রকাশিত: ১২:০৪ অপরাহ্ণ, ২৬ নভেম্বর ২০২২

মাদারীপুরে নিখোঁজের দুইদিন পর মৌসুমি আক্তার (২৪) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) রাতে সদর উপজেলার উত্তর দুধখালী এলাকার নদীর পাড়ের বাগান থেকে মৌসুমির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। স্বজনদের দাবী, ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়েছে মৌসুমীকে। মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বিষয়টি জানিয়েছেন।

মৌসুমি আক্তার সদর উপজেলার দুধখালী ইউনিয়নের উওর দুধখালী গ্রামের মানিক হাওলারের মেয়ে ও একই এলাকার সৌদি প্রবাসী ইলিয়াস মীরার স্ত্রী। তিনি কিছুদিন ধরে মানসিক রোগে ভুগছিলেন। তার ৫ ও ৪ বছর বয়সী ২টি শিশু সন্তান রয়েছে।

পুলিশ ও স্বজনরা জানান, বুধবার বিকেলে বাবার বাড়ি উত্তর দুধখালী থেকে একই গ্রামে দাদির বাড়ির উদ্দেশ্যে বের হন মৌসুমি। দাদির সঙ্গে দেখা করে আর বাড়িতে ফিরে আসেননি তিনি। পরে তার কোনো খোঁজ না পেয়ে চারদিকে খোঁজখুজি শুরু করে পরিবার। ঘটনার দুইদিন পরে শুক্রবার বিকেলে স্থানীয় এক নারী নদীর পাড়ের বাগানে কাঠ কুড়াতে গেলে তার মরদেহ গলায় দড়ি পেঁচানো অবস্থায় ভাঙা গাছের ডালের সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়া অবস্থায় দেখতে পেয়ে স্থানীয়দের খবর দেয়। পরবর্তীতে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহতের খালাত বোন তানজিলা আক্তার বলেন, ‘আমার আপুকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করে গাছের ডালের সঙ্গে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। আপু নয়তো আত্মহত্যা করবে কেন? তার ২টি ছোট ছোট বাচ্চা রয়েছে। আমরা আইনের কাছে ঘটনার তদন্ত করে সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানাই।’

ওসি মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, এই ঘটনার রহস্য উদঘাটনে কাজ শুরু করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের ফলাফল আসলে বিষয়টি জানা যাবে।

না.হাসান/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: