প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

সোহেল রানা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

বিদ্যালয়ের অফিস সহকারীর বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানী ও যৌন নিপিড়নের অভিযোগ

   
প্রকাশিত: ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ, ২৯ নভেম্বর ২০২২

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে লালুয়া মাঝিড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী মো. মোতলেবুর রহমান (৫০)’র বিরুদ্ধে ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী (১৩)কে শ্লীলতাহানী ও যৌন নিপিড়নের লিখিত অভিযোগ উঠেছে।

বিষয়টি ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আছাদুজ্জামান নিশ্চিত করে জানান, শ্লীলতাহানী ও যৌন নিপিড়নের শিকার ওই ছাত্রীর বাবা প্রতিকার চেয়ে তাঁর বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ বিষয়ের প্রেক্ষিতে সোমবার অভিযুক্ত অফিস সহকারীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া প্রক্রিয়াও চলছে বলে জানান তিনি।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার লালুয়া মাঝিড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী মো. মোতলেবুর রহমান দীর্ঘ দিন যাবত তাঁরই বিদ্যালয়ের পাঠদান শুরুর আগে সকালে ৮ থেকে ১০ জন শিক্ষির্থীকে ইংরেজি বিষয়ে প্রাইভেট পড়িয়ে আসছেন। কিন্তু গত বৃহস্পতিবার তিনি শুধু মাত্র ষষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রী বাদে সকল প্রাইভেট পড়া শিক্ষির্থীদের ছুটি দিয়ে দেন। পরে ওই ছাত্রী বিদ্যালয়ে প্রাইভেট পড়তে আসলে কৌশলে অফিস সহকারী মোতলেবুর রহমান একটি কক্ষে ওই ছাত্রীকে আটকিয়ে তাঁর শরীরের স্পর্শকতর জায়গায় হাত দিতে থাকেন। পাশাপাশি ওই ছাত্রীকে যৌন নিপিড়নের চেষ্টা চালান। পরে নিপিড়নের শিকার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ছাড়া পেয়ে বাড়িতে চলে আসে এবং বিষয়টি তাঁর অভিভাবকদের জানান।

আর গত রোববার বিদ্যালয় খুললে এর প্রতিকার চেয়ে যৌন নিপিড়নের শিকার স্কুল ছাত্রীর বাবা অফিস সহকারী মোতলেবুর রহমানের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসাদুজ্জামান বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

লালুয়া মাঝিড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী মো. মোতলেবুর রহমান বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমি হার্টের রোগী বিশ্রামে আছি। এ বিষয় পরে কথা বলবো।

আর ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আছাদুজ্জামান বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। পাশাপাশি এ বিষয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া প্রক্রিয়া চলছে।

তাড়াশ মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফকির জাকির হোসেন জানান, প্রধান শিক্ষক এখনও এ বিষয়ে আমাকে কিছু বলেননি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শাকিল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: