প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

বিশ্বকাপে আরব আমিরাতকে উড়িয়ে দিয়েও বাংলাদেশের বিদায়

   
প্রকাশিত: ৮:৩০ অপরাহ্ণ, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩

ছবি - সংগৃহীত

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত নারীদের অনূর্ধ্ব-১৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে ওঠার স্বপ্ন পূরণ হলো না বাংলাদেশের মেয়েদের। আরব আমিরাতকে ৬৯ রানে বেঁধে ফেলার পর ৯.১ ওভারে পাঁচ উইকেট হারিয়েই লক্ষ্যে পৌঁছায় বাংলাদেশ। তবে নেট রান রেটে পিছিয়ে থাকায় অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে দিশা বিশ্বাসের দল।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে বলতে গেলে টস হেরেই পিছিয়ে পড়ে টাইগ্রেসরা। এরপরও আশা ছিলো। তবে সমীকরণ ছিলো বেশ কঠিন। সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৪০ রানের ভেতর বেঁধে ফেলতে হবে। কিন্তু সেটা পারেনি টাইগ্রেসরা।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে খুব দ্রুত ৪ উইকেট হারালেও ১২ ওভারেই ৪০ রানের লক্ষ্য পার হয়ে যায় আরব আমিরাত। আর তাতেই শেষ হয় জুনিয়র বাঘিনীদের বিশ্বকাপ মিশন। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ৬৯ রান করতে পারে আরব আমিরাত। দলের পক্ষে লাভানিয়া কেনি ২৯ ও মাহিকা গাউর ১৭ রান করেন। আর কেউ দুই অংকের ঘরে রান করতে পারেননি।

বাংলাদেশের হয়ে রাবেয়া খান তিনটি, মারুফা আক্তার দুটি এবং দিপা খাতুন, রিয়া আক্তার শিলা ও স্বর্ণা আক্তার একটি করে উইকেট শিকার করেন। রান তাড়া করতে নেমে মিষ্টি সাহা ১ ও আফিয়া প্রত্যাশা ১৫ রানে আউট হন। স্বর্ণা খেলেন ১৯ বলে ৩৮ রানের ঝড়ো ইনিংস। এছাড়া রাবেয়া খান করেন ১৪ রান। চার হাঁকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন উন্নতি আক্তার।

সুপার সিক্সের দুই ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল যথাক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত। দুই ম্যাচেই জিতলে অবশ্য সহজেই সেমিফাইনালে জায়গা করে নিতো মারুফা আক্তার, সুমাইয়া আক্তার, দিশারা। কিন্তু সুপার সিক্সে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচে ৫ উইকেটে হার দেখে বাংলাদেশ। গ্রুপ পর্ব থেকে ৪ পয়েন্ট নিয়ে সুপার সিক্সে আসা টাইগ্রেসরা নেট রান রেটে পিছিয়ে পড়ে সে ম্যাচে। বাংলাদেশ ৩ ম্যাচ খেলে গ্রুপ পর্বের ৪ পয়েন্টসহ নেট রান রেট দাঁড়ায় ০.২৬৮।

অন্যদিকে সুপার সিক্সে একই গ্রুপে খেলা ভারত, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা প্রত্যেক দলই সর্বোচ্চ ৪ ম্যাচ করে খেলে সমান ৬ পয়েন্ট অর্জন করে ফেলে। দলগুলোর নেট রান রেট দাঁড়ায় যথাক্রমে ভারতের ২.৮৪৪, অস্ট্রেলিয়ার ২.২১০ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার ০.৩৭৪। ফলে এই গ্রুপ থেকে সেমিফাইনালে জিততে হলে নিজেদের শেষ ম্যাচে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে অলআউট করতে হতো ৪০ রানের মধ্যে। তাহলেই কেবল অস্ট্রেলিয়াকে পেছনে ফেলে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলতে পারতো বাঘিনীরা।

আশরাফুল/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: