আরমান হোসেন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচন

পুলিশ সুপারের বদলি ও পদোন্নতির বিষয়ে জানে না ইসি

১৯ মে, ২০১৮ ১৬:০৬:১১

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পরদিন খুলনার পুলিশ সুপার মো. নিজামুল হক মোল্লাকে বদলি এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহকে পুলিশ সুপার হিসেবে পদোন্নতি দিয়ে খুলনায় রাখা হয়েছে। তবে এ বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে জানানো হয়নি বলে জানিয়েছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা জানান, আইনে ভোটের পর ১৫ দিন পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকর ডিসি, এসপি ও ইউএনওদের বদলি করতে নির্বাচন কমিশনের অনুমতি লাগলেও তা এবার করা হয়নি।

গত বৃহস্পতিবার (১৭ মে) উপসচিব ধনঞ্জয় কুমার দাস স্বাক্ষরিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, খুলনার পুলিশ সুপার নিজামুল হক মোল্লাকে ঢাকায় বদলি করে উত্তরাস্থ ১ম আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) এর অধিনায়ক করা হয়েছে। এবং খুলনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহকে পুলিশ সুপার হিসেবে পদোন্নতি দিয়ে খুলনায় রাখা হয়েছে।

একই প্রজ্ঞাপনে ঢাকার ১ম এপিবিএন অধিনায়ক ফরিদুল ইসলামকে ঢাকার নৌ পুলিশের পুলিশ সুপার করা হয়েছে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, খুলনা সিটি করপোরেশনের তফসিলে পুলিশ সুপার পদমর্যাদার ৫ কর্মকর্তার বদলি স্থগিত করা হয়। এবার ভোটের পরদিন দুই কর্মকর্তার বদলি-পদোন্নতি হল।

নির্বাচনী আইন অনুযায়ী, তফসিল ঘোষণার পর থেকে ফলাফল গেজেট আকারে প্রকাশ হওয়ার ১৫ দিন পার না হওয়া পর্যন্ত ইসির সঙ্গে পরামর্শ না করে নির্বাচনী এলাকর ডিসি, এসপি ও ইউএনওদের বদলি করা যাবে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান বলেন, বদলির এ আদেশ এখনও দেখিনি। ভোট শেষ হলেও তো ১৫ দিন পর্যন্ত ইসির ক্লিয়ারেন্স নেওয়ার বিধান রয়েছে। হয়তো বিষয়টি তারা লক্ষ্য করেনি। দেখি, খোঁজ নেওয়া হবে।


বিডি২৪লাইভ/এএইচআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: