প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

শাহাদাত হোসেন রাকিব

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

সচিবালয়ে খন্দকার মোশারফ

‘ঢাকায় ৩ ঘণ্টার বেশি জলাবদ্ধতা থাকে না’

২১ মে, ২০১৮ ১৫:২৪:২২

ছবি: ফাইল ছবি।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, আমি পরিস্কার বলেছি ঢাকায় ৩ ঘণ্টার বেশি জলাবন্ধতা থাকে না। আমি আগেও বলেছি ঢাকায় তিন ঘণ্টার বেশি জলাবন্ধতা থাকবে না এবং থাকছেও না। দুই একটি ব্যাড স্পট ছাড়া দুই ঘণ্টা থেকে আড়াই ঘণ্টার মধ্যে পানি সরে যাচ্ছে।

সোমবার (২১ মে) সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সাথে একান্ত আলাপচারিতায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ঢাকার আশেপাশে ৫৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৬টি খাল সংস্কারের একটি প্রকল্প আমি অনুমোদন দিয়েছি। আসলে টাকাটা আমাদের হাতে গচ্ছিত নেই। প্লানের বাইরে কোন কিছু করতে গেলেই ফাইন্যান্স মিনিস্ট্রি থেকে আমাদের টাকা নিতে হয়। আর সেখান থেকে টাকা নিতে দেরি হয়। ফলে কাজেও দেরি হয়। এ টাকাটা আমি যদি দুই মাস আগে পেতাম তাহলে কাজ আরও এগিয়ে যেত। জলাবন্ধতাও অনেকাংশে কমে যেত।

খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেন, এলাকায় জলাবন্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে এবং পানি যেতে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হচ্ছে সেসব এলাকায় আমরা এডহক বেসিসে মুভ করছি এবং পার্মানেন্ট ব্যাসিসে করার জন্য এই ৫৫০ কোটি টাকা প্রকল্প আমরা অনুমোদন দিয়েছি। কাজেই যে জলাবন্ধতা একশ বছর আগে শুরু হয়েছে সেটাতো হঠাৎ করেই শেষ করা যাবে না। এক্ষেত্রে ডিটেইল প্লান করে এর সমাধানের চেষ্টা করতে হবে। আমরা ১৬ টি খালের দুই পাড় বেধে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দুই পাড়েই থাকবে ওয়াকওয়ে। যাতে করে কেউ আর দখল করতে না পারে।

মন্ত্রী বলেন, আর আমরা যে ৫৫০ কোটি টাকার কাজ হাতে নিচ্ছি তা স্থানীয় জনগণকে সম্পৃক্ত করে করা হবে। প্রতিটি এলাকায় কমিটি করে এ কাজগুলো করা হবে। যাতে রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বেও তারা থাকেন। যে কেউ যাতে খালের মধ্যে বস্তা এনে ফেলে দিয়ে বন্ধ করে দিতে না পারে এজন্য স্থানীয় জনগণকে সম্পৃক্ত করা হবে।

বিডি২৪লাইভ/এএইচআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: