আবু হানিফ হাসান

নোয়াখালি প্রতিনিধি

পাঠ্যবইয়ের সুবিধা থেকে বঞ্চিত ১৩শ শিক্ষার্থী 

১৪ জুন, ২০১৮ ১৪:৪০:৪০

নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ, সুবর্ণচর ও চাটখিল উপজেলার প্রায় ১৩শ অধিক শিক্ষার্থী হিন্দু ধর্মের পাঠ্যবইয়ের সুফল থেকে বঞ্চিত। শিক্ষাবর্ষের পাঁচ মাস পেরিয়ে ছয় মাস গড়িয়ে যাচ্ছে তবুও হিন্দু ধর্মের পাঠ্যবই পায় নাই এই সব শিক্ষার্থীরা।

এর মধ্যে বেগমগঞ্জ উপজেলার প্রায় ৮০০ জন শিক্ষার্থী, সুবর্ণচর উপজেলার প্রায় ৫০০ জন শিক্ষার্থী এবং চাটখিলসহ বিভিন্ন জায়গার বেশ কিছু শিক্ষার্থী যারা এখনো হিন্দু ধর্মের পাঠ্যবই পায় নাই।

খাসের হাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানায়, তার স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ৭০ জন শিক্ষার্থী হিন্দু ধর্মের বই পায় নাই। অথচ আর মাত্র কয়েক মাস পরই তাদের পরীক্ষা কিন্তু তারা এখন ও বই পায় নাই। ফলে শিক্ষার্থী ও অভিবাবকরা ক্ষুব্ধ।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন নোয়াখালী জেলা জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোটের সদস্য সচিব, সুমন চন্দ্র ভৌমিক।

নোয়াখালী জেলা শিক্ষা অফিসারের বরাবর একটা স্বারকলিপি পেশ করেন। হিন্দু ছাত্র সমাজের পক্ষ থেকে জেলা হিন্দু ছাত্র মহাজোটের সদস্য সচিব সুমন চন্দ্র ভৌমিক এই সময় তিনি কারণ জানতে চাইলে সহকারী শিক্ষা অফিসার জানায়, বইয়ের সংকটের কারণে যথা সময়ে বই দিতে পারে নাই তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।

তাৎক্ষণিক তিনি সুবর্নচর উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে ফোন করে নিশ্চিত হন। যে তাদের উপজেলার বেশ কিছু সংখ্যক শিক্ষার্থী হিন্দু ধর্মের পাঠপুস্তক থেকে বঞ্চিত। জেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার এই সময় একটা বিষয় নিশ্চিত করেন যে, সারাদেশে তীব্র বইয়ের সংকট প্রায় দুই লাখ হিন্দু ধর্মের বই নতুন করে ছাপানোর পক্রিয়া চলছে। ঈদের পরে খুব দ্রুতই বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা পাঠ্যবই তাদের নিজ নিজ বিদ্যালয়ে হাতে হাতে পেয়ে যাবেন।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: