প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

হাসান আল মাহমুদ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ক্ষোভ নিয়ে চলে গেলেন ফখরুল

‘আপনারা সমাবেশ করতে পারবেন না’

১৪ জুলাই, ২০১৮ ১৩:৪১:৫২

ফাইলফটো

‘দেশে নুন্যতম গণতান্ত্রিক স্পেস নেই’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ শনিবার (১৪ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনের সেমিনার কক্ষে জিয়া পরিষদের উদ্যোগে ‘বুদ্ধিজীবী সমাবেশ’ অনুষ্ঠান পুলিশ বাতিল করায় সাংবাদিকদের কাছে তিনি এই মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশে আজকে ন্যূনতম গণতান্ত্রিক স্পেস নাই, মত প্রকাশের স্বাধীনতা নেই। আজকে এখানে কোনো রাজনৈতিক দলের সমাবেশ নয়, অরাজনৈতিক একটি সংগঠনের সমাবেশ ছিলো। সেটাকেও এই সরকার করতে দেয়নি। আমি এর তীব্র নিন্দা ও ধিক্কার জানাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘এটা খুবই পরিতাপের কথা, ক্ষোভের কথা, দুর্ভাগ্যের কথা যে আজকে বাংলাদেশ সরকারের পুলিশ বিভাগ তারা একটা ভয়ঙ্কর দুঃশাসনের কাজ করছে, অত্যাচার-নির্যাতনের পথ বেঁছে নিয়েছে। আমি এই ঘটনার নিন্দা জানাচ্ছি।’

সকাল সাড়ে ১০টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনের সেমিনার কক্ষে জিয়া পরিষদের উদ্যোগে ‘বুদ্ধিজীবী সমাবেশ’ হওয়ার সব আয়োজনই করা হয়। সেমিনার কক্ষে ব্যানারও টানানো হয়। ঢাকা, রাজশাহী, সিলেট, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষকরাও এই অনুষ্ঠানে অংশ নিতে অনুষ্ঠানস্থলে আসেন। জিয়া পরিষদের চেয়ারম্যান কবীর মুরাদকে সকাল সোয়া ১০টার দিকে পুলিশ সদস্যরা জানিয়ে দেয় যে, ‘এই অনুষ্ঠানের কোনো অনুমতি নেই। আপনারা সমাবেশ করতে পারবেন না। পরে আয়োজকরা অনুষ্ঠানটি বাতিল করে।’

এমন পর্যায়ে সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে প্রধান অতিথি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট প্রাঙ্গনে আসলে আয়োজকরা বিষয়টি জানায়। পরে গাড়ি থেকে নেমে তিনি সাংবাদিকদের কাছে এই ঘটনার নিন্দা জানান।

বিডি২৪লাইভ/ এইচএএম/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: