এইচএসসি পরীক্ষা

ফলাফল খারাপ হওয়ায় ৮ শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা

১৯ জুলাই, ২০১৮ ২৩:৫০:০০

ছবি : প্রতীকী

শামসুজ্জোহা বাবু,
রাজশাহী প্রতিনিধিঃ

এবার ২০১৮ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় ফেল করায় ৮ জন পরীক্ষার্থী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। এরা গলায় ফাঁস, বিষপান, হারপিক ও ট্যাবলেটন সেবন করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়েছে।

আত্মহত্যার চেষ্টাকারী পরীক্ষার্থীরা হলো, রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার রক্ষিতপাড়া গ্রামের আমজাদের ছেলে তপু, নগরীর বোয়ালিয়া থানার সাগরপাড়া এলাকার মাহবুবের মেয়ে ইতি, এয়ারপোর্ট থানার বায়া বাজার এলাকার বাসিন্দা সোহানা, আরএমপির কাটাখালি থানা এলাকার আজগরের মেয়ে শিখা ও নাটোর জেলার বাঁশবাড়িয়া এলাকার সেলিমের মেয়ে শ্যামা। এছাড়া বাকি তিনজনের নাম পাওয়া যায়নি।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ৮ জন পরীক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষায় রেজাল্ট খারাপ হওয়ার কারণে বিভিন্নভাবে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরে পরিবারের লোকজন জানতে পেরে তাদের উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ৮ জনের মধ্যে ৭ জন রাজশাহী মহানগর ও জেলার এবং ১ জন নাটোর জেলার পরীক্ষার্থী।

এ বিষয়ে হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এএসআই রফিক বলেন, পরীক্ষায় রেজাল্ট খারাপ হওয়ায় ৮ জন আত্মহত্যার চেষ্টা করে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তারা চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত হওয়া এইচএসসি পরীক্ষার রেজাল্ট বৃহস্পতিবার দেয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী বোর্ডে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানানো হয় এবার পাসের হার ৬৯ দশমিক ৫১ শতাংশ। গত ৭ বছরের মধ্যে এ বছর থেকে থেকে খারাপ রেজাল্ট হয় রাজশাহী বোর্ডে।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: