বিদ্যালয় মাঠে হঠাৎ হেলিকপ্টার, এরপর...

১২ আগস্ট, ২০১৮ ২১:২৮:৪০

ছবি: প্রতিনিধি

ইসমাইল হোসেন রবিন, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে ক্লাস চলাকালিন সময় হঠাৎ বিদ্যালয় মাঠে সম্ভাব্য এমপি প্রার্থী অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার ট্রাস্টের হেলিকপ্টারে অবতরণ করে। এ সময় বিকট শব্দ শুনে ক্লাস বন্ধ রেখেই মাঠে ছুটে আসে শিক্ষার্থীরা।

রবিবার (১২ আগস্ট) দুপুর ১২ টার দিকে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের মান্দারী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ হেলিকপ্টার অবতরণ করা হয়। তবে বিষয়টি আগে থেকে জানেন না বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এদিকে সংশ্লিষ্ট কারো অনুমতি ছাড়া বিদ্যালয় মাঠে হেলিকপ্টার অবতরণ করায় অভিভাবক ও স্থানীয়দের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

অধ্যক্ষ এমএ সাত্তার লক্ষ্মীপুর-৩ আসনে আওয়ামী লীগ থেকে সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী। এছাড়াও তিনি শ্যামলী আইডিয়াল পলিটেকনিকেল ইনষ্টিটিউট এর চেয়ারম্যান।

বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও অভিভাবকরা জানায়, দুপুরে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদান চলছিল। হঠাৎ বাহিরে বিকট শব্দ শুনে ক্লাস ছেড়ে বাহিরে চলে যায় ছাত্র-ছাত্রীরা। এসময় একটি হেলিকপ্টারে বিদ্যালয় মাঠে অবতরণ করেন অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার ট্রাষ্ট। নেতাকর্মীরাও তাঁকে স্বাগত জানাতে জড়ো হয়ে যায়। এক পর্যায়ে বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে সভাও করেন তিনি। এতে সাময়িক সময়ের জন্য বিদ্যালয়ের পাঠদান বন্ধ করে দেওয়া হয়। হেলিকপ্টারে অবতরণের বিষয়ে আগে থেকেই প্রশাসনের কাছ থেকে কোন অনুমতি নেওয়া হয়নি।

জেলা প্রশাসক অফিসের এক কর্মকর্তা জানান, জেলায় সরকারি/বেসরকারি যেকেউ হেলিকপ্টরে অবতরণ করার পূর্বে সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে অনুমতিপত্র নিতে হয়। কিন্তু এমএ সাত্তার হেলিকপ্টার অবতরণের বিষয়ে জেলা প্রশাসন থেকে কোন অনুমতি নেওয়া হয়নি।

হেলিকপ্টরে অবতরণে অনুমতির বিষয়ে বক্তব্য জানতে অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার ট্রাস্ট্রের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তা সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে মান্দারী ইউনিয়নের মান্দারী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের (ভারপ্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষক মহিবুল হক বলেন, ১১টার পরে দলীয় নেতাকর্মীরা বিদ্যালয়ে অবস্থান নেয়। এর পর ১২ টার দিকে একটি হেলিকপ্টারে সাত্তার ট্রাস্ট অবতরণ করেন। তবে হেলিকপ্টার অবতরণের বিষয়ে আমাকে আগে থেকে কিছুই জানানো হয়নি।

সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আবু তালেব বলেন, ক্লাস চলাকালিন সময় হেলিকপ্টার অবতরণের জন্য জেলা প্রশাসক থেকে অনুমতি নিতে হবে। অনুমতি ছাড়া কেউ এ ধরনের কাজ করে থাকলে তা বেআইনি।

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল বলেন, সরকারি/বেসরকারিভাবে হেলিকপ্টার অবতরণ করতে হলে প্রশাসনের অনুমতি লাগবে। এক্ষেত্রে সাত্তার ট্রাস্ট থেকে কোন অনুমতিই নেয়নি। ক্লাস চলাকালে হঠাৎ হেলিকপ্টার অবতরণ করলে দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকে। বিষয়টি খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: