‘রাস্তা পাকা না হলে নৌকা প্রতীক বর্জন করা হবে’

১৭ আগস্ট, ২০১৮ ০০:১৩:২৪

ছবি: প্রতিনিধি

শামসুজ্জোহা বাবু,
রাজশাহী থেকে:

রাজশাহীর পবার পারিলায় রাস্তা সংস্কারসহ পাকা করণের দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) বিকালে দিঘীর পারিলায় পারিলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর নেতৃত্বে এ কর্মসুচিতে অংশ নেন এলাকাবাসী। এলাকাবাসী দিঘীর পারিলা থেকে সফাডাঙ্গা ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তা সংস্কারসহ পাকাকরণের দাবিতে এ মানববন্ধন করেন।

বিক্ষোভ ও মানববন্ধনে এলাকাবাসী বলেন, আওয়ামী লীগ ও নৌকা প্রতীকের জন্যই এ গ্রামের উন্নয়ন হয় না। তারা বলেন, বিএনপি সরকার আসলে নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার জন্য রাস্তা করেনি। আবার নৌকা প্রতীকে ভোট দিলে নেতৃবৃন্দ বলেন, এ গ্রামের রাস্তাঘাটের উন্নয়ন না করলেও ভোট নৌকাতেই যাবে। এ গ্রামের বাসিন্দারা এভাবেই বঞ্চিত হচ্ছে। উপস্থিত অনেকে বলেন, এ গ্রামের রাস্তা সংস্কারসহ পাকাকরণ শীঘ্রই না হলে আগামী সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিব না।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ফাহিমা বেগম বলেন, এই গ্রাম থেকেই প্রায় ১৫শ’ ভোট বরাবরেই নৌকা প্রতীক পেয়ে থাকে। অথচ এই গ্রামের যাওয়া রাস্তাটির বেহাল অবস্থা। অনেকে কাদায় পড়ে হাত-পা ভেঙ্গেছে। আবার কোন অসুস্থ রোগী ও প্রসূতি মাতাকে মেডিকেলে নেওয়ার বড়ই কষ্ট হয়। প্রায় দেড় কিলোমিটার এই রাস্তাটি পাকাকরণ খুবই জরুরী।

তিনি আরো বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রার্থী ছিলেন। শুধুমাত্র প্রতিহিংসার জন্য বিজয়ী হতে পারেন নি। গত চার বছরে পারিলা ইউনিয়নে যে সমস্ত চাকরি হয়েছে তদন্ত করলেই দেখতে পাবেন প্রায় সবগুলোই বিএনপি জামায়াত থেকে হয়েছে।

এ ব্যাপারে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাইফুল বারী ভুলু বলেন, রাস্তা পাকাকরণের বিষয়টি সংসদ সদস্য দেখভাল করেন। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে রাস্তা পাকাকরণ সম্ভব নয় বলে তিনি জানান। তবে তিনি জেনেছেন সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন ওই রাস্তাটি পাকাকরণের বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছেন।

এ কর্মসুচিতে উপস্থিত ছিলেন, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল গফুর, নুরুল হক, জামাল হোসেন, মোজাহার আলী, ফারুক মাল, ইনতাজ মন্ডল, মুনতাজ আলী, আয়নাল হক, মকবুল আলী, আমিনুল ইসলাম, যোবায়ের হোসেন, রুবেল ইসলাম, হাসিবুল ইসলাম, তাজ উদ্দিন, জাহাঙ্গীর হোসেন, রাজীব, শরিফুল, মোস্তফা, শিক্ষক আলতাব হোসেন প্রমুখ।

বিডি২৪লাইভ/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: