সম্পাদনা: সাজিদ সুমন

ডেস্ক এডিটর

আহত আরও ৭

বাস ও লেগুনার সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১ 

২০ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:৫৩:০৭

ছবিঃ প্রতীকী।

নরসিংদীতে যাত্রীবাহী বাস ও লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ ১১ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৭ জন যাত্রী।

সোমবার (২০ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ভৈরব ও নরসিংদীর সীমান্ত এলাকা বেলাবো উপজেলার দরিকান্দি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে ৫ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- সুনামগঞ্জের আজমেরীগঞ্জের আবুল হোসেন (৩০), আবদুল মিয়া (২৪), মোবারক মিয়া (১৮), সুজন মিয়া (২২) ও তার স্ত্রী রাহেলা বেগম (২০)।

পুলিশ জানিয়েছে, কিশোরগঞ্জ থেকে বস পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকা যাচ্ছিল। গাড়িটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দরিকান্দি এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ভৈরবগামী একটি যাত্রীবাহী লেগুনার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই লেগুনার ৮ যাত্রী নিহত হন। আহতদের উদ্ধার করে ভৈরব ও নরসিংদীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে ভৈরব স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২ জনের মৃত্যু হয়। নরসিংদী জেলা হাসপাতালে আনার পর একজন মারা যান।

ভৈরব হাইওয়ে থানার ওসি তৈফিকুর ইসলাম জানান, যাত্রীবাহী বাসের চালক পালিয়ে গেছে। দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি দুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন বলেন, দুটি গাড়িই দ্রুতগতিতে আসছিল। এখানে কোনো জ্যাম ছিলনা। ওভারস্পিডের কারণেই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি।

বিডি২৪লাইভ/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: