প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

চলতি সপ্তাহে আইন মন্ত্রণালয়ে

নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিধান সংযুক্ত হচ্ছে

০২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:১৭:০০

ফাইল ফটো

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের জন্য যে আরপিও সংশোধন করা হচ্ছে সেটি চলতি সপ্তাহে আইন মন্ত্রণালয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন সূত্র।

সূত্র জানায়, সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের বিধান যুক্ত করে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। সেটি আইন মন্ত্রণালয়ের পর সংসদে যাবে। আরপিওতে ইভিএম বিধান ছাড়াও কয়েকটি সংশোধনী আনা হচ্ছে।

নির্বাচন কমিশনার ড. মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বেসিক প্রভিশন সৃষ্টি করতে আরপিও সংশোধনীর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এটি আইন মন্ত্রণালয়, মন্ত্রিসভা হয়ে সংসদে উঠবে। এসব প্রক্রিয়া শেষ করতে কতটুকু সময় লাগবে, তফসিলের আগে কতটুকু সময় থাকবে, আমরা কতটুকু প্রস্তুতি নিতে পারব- এ রকম অনেক কিছুর ওপর ইভিএম ব্যবহার নির্ভর করছে।’

এদিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে একাধিক দিনে ভোট গ্রহণের সুযোগ রেখে আরপিওতে নতুন বিধান অন্তর্ভুক্তের প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছে কমিশন। গত বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচন কমিশনের সভায় একাধিক দিনে ভোট গ্রহণসহ ২০টির বেশি সংশোধনীর সুপারিশ করেছিল আইন ও বিধিমালা সংস্কার কমিটি। এতে নির্দিষ্ট কার্ড ছাড়া পোলিং এজেন্টদের ভোট কক্ষে প্রবেশের অনুমোদন না দেয়ার বিষয় অন্তর্ভুক্ত ছিল।

এছাড়া, ব্যয় মনিটরিং এবং নির্বাচনে অভিযোগ প্রশমন কৌশলসহ কয়েকটি নতুন প্রস্তাব অন্তর্ভুক্তের সুপারিশ করা হয়। আরপিওতে বর্তমানে ৯৫টি ধারা আছে। ধারার সংখ্যা ৯৫ থেকে বাড়িয়ে ১১৮ তে উন্নীত করার প্রস্তাব করা হয়। কিন্ত কমিশন ইভিএম, অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিলসহ কয়েকটি বিষয়ে আরপিওতে সংশোধনী আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাকিগুলো নাকচ করে দেয়।

জানা গেছে, ৯ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদ অধিবেশন শুরু হচ্ছে। ৩১ অক্টোবর থেকে শুরু হবে জাতীয় নির্বাচনের কাউন্টডাউন। এ হিসাবে জাতীয় নির্বাচনের আগে এটিই শেষ অধিবেশন হতে পারে। জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের আইনগত ভিত্তি তৈরি করতে এ অধিবেশনেই আরপিও সংশোধনী অনুমোদনের প্রয়োজন হবে। ডিসেম্বরের শেষ দিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে। অক্টোবরের শেষ বা নভেম্বরের শুরুতে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হতে পারে।

বিডি২৪লাইভ/ওয়াইএ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: