শহিদুল আলমের জামিন শুনানি মঙ্গলবার

০৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৪:২৮:৩৮

ছবি: সংগৃহীত

তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের জামিন চেয়ে করা আবেদনের শুনানি আগামীকাল মঙ্গলবার দিন নির্ধারণ করেছেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি খোন্দকার দিলুরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ আজ সোমবার (৩ সেপ্টেম্বর) এ আদেশ দেন।

আদালতে শহিদুল আলমের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন সারা হোসেন। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

এ বিষয়ে তার আইনজীবী সারা হোসেন বলেন, আজকে শহিদুল আলমের পক্ষে জামিনের আবেদন হাইকোর্টের কার্য তালিকায় ছিল। আমি আদালতে বলেছি যাতে এ আবেদনের একটু আগে শুনানি করা যায়। কিন্তু তার আগেই অ্যাটর্নি জেনারেলের পক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতকে জানিয়েছেন, এ আবেদনের শুনানিতে অ্যাটর্নি জেনারেল নিজেই থাকতে চান। এ কারণে মঙ্গলবার পর্যন্ত সময় চান। পরে আদালত তাদের আবেদনটি মঞ্জুর করে মঙ্গলবার পর্যন্ত সময় দেন।

তিনি বলেন, আমরা আশা করবো আগামীকাল অবশ্যই শুনানি হবে। রাষ্ট্রপক্ষের কোনও আপত্তি থাকবে না। কারণ তার কারাবন্দি এক মাস হয়ে গেছে। শুধুমাত্র একটি বক্তব্য দেয়ার কারণে এক মাস ধরে কারাবন্দি। যদিও সেই বক্তব্যের অনেক কথাই তিনি বলেননি। ইন্টারনেটে গিয়ে আপনারা দেখতে পারবেন সেখানে অনেক কথাই তিনি বলেননি, যা তার বিরুদ্ধে বলা হয়েছে। এটার জন্য কেন একজন মানুষকে এক মাস আটকে রাখতে হবে, তা বুঝতে পারছি না।’

উল্লেখ্য, নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে ‘উস্কানিমূলক মিথ্যা’তথ্য প্রচারের অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় ৬ আগস্ট শহিদুল আলমকে সাতদিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। এর আগের দিন রাতে গত ৫ আগস্ট রাতে ধানমণ্ডির বাসা থেকে ডিবি পরিচয়ে একদল লোক শহিদুলকে তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন তার স্ত্রী রেহনুমা আহমেদ। এর পর তাকে রমনা থানার মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে হাজির করে পুলিশ।

এরপর সাতদিনের রিমান্ড শেষে গত ১২ আগস্ট শহিদুলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন নিম্ন আদালত।

এদিকে শহিদুল আলমকে মুক্তি দিতে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ আইনপ্রণেতা টিউলিপ সিদ্দিক।

এর আগে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন, নোয়াম চমস্কি, অরুন্ধতী রায়সহ খ্যাতিমান একাধিক লেখক-বুদ্ধিজীবীরা মুক্তি দিতে বিবৃতি দেন। এছাড়া পেন ইন্টারন্যাশনালসহ একাধিক আন্তর্জাতিক সংগঠনও তার মুক্তি চেয়ে বিবৃতি দেয়।

বিডি২৪লাইভ/এএইচ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: