প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

‘জন্মদিন এলে মুত্যুর কথা মনে পড়ে’

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৬:১৩:৫০

ছবি: সংগৃহীত

আজ সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) তার জন্ম দিন। ১৯৪১ সালের ১০ সেপ্টেম্বর নোয়াখালীর দৌলতপুরে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ১৯৬১ সালে পরিচালক উদয়ন চৌধুরীর ‘বিষকন্যা’ চলচ্চিত্রে সহকারি পরিচালক হিসেবে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করেন। তারপর থেকে একাধারে অভিনয় করে চলেছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা, কাহিনীকার, চিত্রনাট্যকার, সংলাপকার ও গল্পকার এটিএম শামসুজ্জামান।

জন্ম দিনে এটিএম শামসুজ্জামান বলেন, ‘জন্মদিন এলে মুত্যুর কথা মনে পড়ে যায়, কারণ জন্মদিন আসা মানেই হলো জীবন থেকে আরও একটি বছর চলে যাওয়া। জন্মদিন আসা মানেই হলো মুত্যুর দিকে আরও একধাপ এগিয়ে যাওয়া। অবশ্য এরইমধ্যে বেশ কয়েকবার আমার মুত্যুকে নিয়ে গুজব হয়েছে। কে বা কারা যে এমন করে এবং এটা করে যে তাদের কী লাভ হয় আমি সেটাও বুঝিনা। যাইহোক জন্মদিনে সবার কাছে দোয়া চাই, আমার জন্য প্রাণ ভরে দোয়া করবেন যেন আল্লাহ আমাকে সুস্থ রাখেন, ভালো রাখেন।’

এটিএম শামসুজ্জামান অভিনয় স্বীকৃতি হিসেবে পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। শিল্পকলায় অবদানের জন্য পেয়েছেন রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদক। ২০১৫ সালে তাকে এ পদক দেয়া হয়।

১৯৬৫ সালে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করেন। এরপর ১৯৭৬ সালে চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনের নয়নমণি চলচ্চিত্রের মাধ্যে চলে আসেন খলনায়কের চরিত্রে। তবে মজার বিষয় হল জীবনের প্রথম অভিনীত ছবি ‘ন্যায়ী জিন্দেগী’ শেষ পর্যন্ত সমাপ্ত হয়নি। বর্তমানে তিনি চলচ্চিত্র থেকে বিরতিতে আছেন। তবে আবার ফিরবেন বলে জানিয়েছেন।

গুণী এই অভিনেতার জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ার তারকা অভিনেতা-অভিনেত্রী, নির্মাতা থেকে শুরু করে মিডিয়ার সঙ্গে জড়িত অনেকেই শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন।

বিডি২৪লাইভ/এএইচ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: