মাসুম বিল্লাহ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

মূল গেটে ফাটল

জবিতে যেকোন সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা!

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৯:০৫:০২

ফাইল ফটো

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশ পথে মূল ফটকের বেহাল দশা। গত পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় সাজসজ্জার সময় প্রধানফটকের ওপরের একটি অংশ ভেঙে পড়ে। এ সময় দেয়ালের বিভিন্ন জায়গায় ফাটল দেখা দেয়। খসে পড়া দেয়াল যেকোন সময় গায়ে এসে পড়তে পারে। ঘটতে পারে বড় দুর্ঘটনা।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে অতি দ্রুত ফটক সংস্কার করার কথা বলা হলেও, দীর্ঘ পাঁচ মাসেও কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। এ দিকে জবির প্রবেশ মুখে বিশ্ববিদ্যালয় স্ট্যান্ডার্ডে একটি ফটক চান শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, ১৯৯২ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (তৎকালীন জগন্নাথ কলেজ) শতবর্ষ উদযাপনের সময় প্রধান ফটকটি নির্মাণ করা হয়। দীর্ঘ দিন যাবৎএটি মেরামত না করায় ওপরের অংশ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় ছিল। গত পয়লা বৈশাখে বিশ্ববিদ্যালয়সহ ফটকটিতে আলোকসজ্জা করার সময় ফটকে একজন আলোকসজ্জাকর্মী উঠলে এর ওপরের অংশ ভেঙে পড়ে ফটকের সৌন্দর্যহানি হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকটি ভেঙে একটি বড় ফটক নির্মাণের পরিকল্পনা থাকায় দীর্ঘ দিন যাবৎ ফটকটি সংস্কার করা হয়নি। এদিকে ক্যাম্পাসে প্রবেশের অন্য বিকল্প ফটকগুলো দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ থাকায় প্রবেশ পথ হিসেবে বাহাদুর শাহ পার্ক সংলগ্ন এই একমাত্র ফটক দিয়ে চলাচল করতে হয় শিক্ষার্থীদের।

শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, ফটকটি আমাদের জন্য এখন মৃত্যুফাঁদ। দ্বিতীয় ক্যাম্পাসে সব সুযোগ-সুবিধা দেয়ার কথা বলে জবিপ্রশাসন আমাদেরকে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে রাখছে। আমরা এই ক্যাম্পাসের প্রবেশদ্বারে একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্ট্যান্ডার্ডের ফটক চাই। নতুন শৈলী ও দৃষ্টিনন্দন প্রধান ফটক নির্মিত হলে ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আউটলুক অনেক বৃদ্ধি পাবে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধাান প্রকৌশলী সুকুমার চন্দ্র সাহা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার প্লানে একটি বড় নান্দনিক ফটক তৈরির পরিকল্পনা আছে। এ নিয়ে ভিসি স্যারের সাথে কথাহয়েছে। তবে কবে পরিকল্পনাটি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে সেটি বলতে পারছি না।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: