ভাবির গোসলের ভিডিও মোবাইলে ধারণ, এরপর

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৮:০৪:১৯

ছবি: প্রতীকী

গোসলের সময় গোপনে ভাবির আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে চাঁদা দাবির অভিযোগে মামলা হয়েছে। ঘটনা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায়। এ ঘটনায় কোম্পানীগঞ্জ থানায় তিনজনকে আসামি করে একটি চাঁদাবাজির মামলা করেছেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক বলেন, মামলার পর অভিযান চালিয়ে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে আপত্তিকর ছবি, ভিডিওসহ মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। তবে ঘটনার মূল হোতা বিজয় বর্তমানে পলাতক রয়েছে।

মামলার অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, একই বাড়ির কৃষ্ণ বৈষ্ণবের ছেলে বিজয় তার দূরসম্পর্কের ভাবির গোসলের সময় গোপনে ভিডিও ধারণ করে। পরে ওই ভিডিও এবং ছবি ভাবির মুঠোফোনের ইমুতে পাঠায়। সেই সঙ্গে ওই ভিডিও তার বন্ধুদের ফোনে পাঠায়। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে বিজয় ও তার বন্ধুরা।

এ ঘটনায় মামলা করেন গৃহবধূ। গৃহবধূর মামলার সূত্র ধরে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হকের পরামর্শে চাঁদাবাজদের ৪৫ হাজার টাকা দিতে সম্মত হন গৃহবধূ। এরপর তাদের ধরতে ফাঁদ পাতে পুলিশ।

গৃহবধূর কথামতো, চাঁদার টাকার জন্য আসলে ভিডিওধারণকারী বিজয়ের বন্ধু সিরাজপুর ইউনিয়নের বিরাহীমপুর গ্রামের আবদুল্ল্যাহ আল নোমান (২০) ও চরকাঁকড়া ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আবদুর রহিমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। কিন্তু বিজয়কে এখনো ধরতে পারেনি পুলিশ। তাকে ধরতে অভিযান চলছে বলে জানান পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক।

বিডি২৪লাইভ/আরআই

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: