প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

সম্পাদনা: সাজিদ সুমন

ডেস্ক এডিটর

খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভর্তির সুপারিশ

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৭:৪০:৫০

ছবিঃ সংগৃহীত

কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ভর্তির সুপারিশ করা হয়েছে। খালেদাকে চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড এ সুপারিশ করা হয়েছে।

রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএসএমএমইউর পরিচালক অধ্যাপক আবদুল্লাহ আল হারুন এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার অসুস্থতা গুরুতর নয়। কয়েকটি সুপারিশসহ মেডিকেল বোর্ড তাদের প্রতিবেদন কারা কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়েছে। যে হাসপাতালে সব রোগের চিকিৎসার ব্যবস্থা আছে, সেখানে খালেদা জিয়াকে ভর্তি করাতে বোর্ড সুপারিশ করেছে। তারা বিএসএমএমইউর নামও সুপারিশ করেছে।

অধ্যাপক হারুন বলেন, মেডিকেল বোর্ডের পর্যবেক্ষণ হলো বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অসুস্থ। তবে এই অসুস্থতা কারাগারে থাকার কারণে নয়। খালেদা জিয়ার কিছু স্বাস্থ্যগত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করাতেও সুপারিশ করেছে বোর্ড।

এর আগে শনিবার বিকেল পৌনে ৪টার দিকে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রবেশ করে খালেদার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন তার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা।

পরে পৌনে ৫টার দিকে বের হয়ে আসেন তারা। কারাগারে খালেদা খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর বের হয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেননি বোর্ডের কোনও সদস্যই।

কারাকর্তৃপক্ষের কাছ থেকে চিঠি পাওয়ার পর গত ১৩ সেপ্টেম্বর গঠিত এই মেডিকেলে বোর্ডের নেতৃত্বে রয়েছেন- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক আব্দুল জলিল চৌধুরী।

বোর্ডের অন্য সদস্যরা হলেন- কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক হারিসুল হক, অর্থোপেডিক সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক আবু জাফর চৌধুরী, চক্ষু বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তারেক রেজা আলী ও ফিজিকেল মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বদরুন্নেসা আহমেদ।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া।

বিডি২৪লাইভ/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: