মনজুরুল ইসলাম

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

মাদ্রাসা ছাত্রী দোকানে ঢোকা মাত্রই সাটার ফেলে দেয় যুবক, এরপর...

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৮:৫২:৪৮

ছবি: প্রতীকী

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মোশাররফ হোসেন (২২) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে মোশাররফকে আটক করা হয়েছে। মোশাররফ হোসেন স্থানীয় তরপপাছাইল গ্রামের মৃত জসিম উদ্দিনের ছেলে বলে জানান ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মাওলা।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় আজ রোববার সকালে মাদ্রাসা ছাত্রীর মা বাদি হয়ে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ এনে মোশাররফকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। ঘটনাটি ঘটে শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) উপজেলার মগটুলা ইউনিয়নের নবাবগঞ্জ বাজারে আটক মোশাররফের মোবাইল সার্ভিসিং এর দোকানে।

শনিবার দুপুর ২ টার দিকে এলাকার দশম শ্রেণির (দাখিল) এক মাদ্রাসা ছাত্রী মোবাইল মেরামতের জন্যে যায়। গ্রাম্যবাজারে তখন মানুষের উপস্থিতি কম থাকার সুযোগ নিয়ে দোকানদার যুবক মোশাররফ হোসেন (২২) দোকানের সাঁটার লাগিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।

তখন মেয়েটির আত্মচিৎকারে আসপাশের লোকজন এসে দোকানে তালা লাগিয়ে দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মাদ্রাসা ছাত্রীটিকে উদ্ধার করে লম্পট মোশারফকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

মাদ্রাসা ছাত্রী জানায়, সে দোকানে মোবাইল মেরামতের জন্যে গেলে হঠাৎ করে দোকানদার সাটার নামিয়ে ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। আমি ভয়ে চিৎকার করতে থাকলে আশপাশের লোকজন দোকানদারকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আমাকে উদ্ধার করে ।

আটক মোশাররফ হোসেন জানান, মেয়েটি মোবাইল মেরামতের জন্যে এসে দোকানের ভিতর প্রবেশ করলে দোকানের সাটারটি ঢিল থাকায় পড়ে যায়। পরে মেয়েটি ভয় পেয়ে যায়।

ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা হয়েছে। আটক মোশাররফকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: