এস হোসেন আকাশ

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

রাষ্ট্রপতির আগ্রহে কিশোরগঞ্জে হচ্ছে শিশু পার্ক

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:৪৯:৪৮

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এঁর আগ্রহে কিশোরগঞ্জে বহুল আকাঙ্ক্ষিত শিশুপার্ক নির্মাণ হতে যাচ্ছে। শিশু পার্কের পাশাপাশি নির্মাণ করা হবে শিশু একাডেমি ও পরিবহন পুল।

এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপতির নির্দেশনা পাওয়ার পর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে সম্প্রতি জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রস্তুাবিত স্থান পরিদর্শন করেছেন।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানিয়েছে, কিশোরগঞ্জ শহরতলীর শোলমারা এলাকায় সদর উপজেলা কমপ্লেক্স সংলগ্ন গণপূর্ত বিভাগের বিশাল পরিত্যক্ত জায়গায় এই শিশু পার্ক, শিশু একাডেমি ও পরিবহন পুল নির্মাণ করা হবে। মোট ২৮ একরের এই অব্যবহৃত পরিত্যক্ত জায়গাটিতে শিশু পার্ক, শিশু একাডেমি ও পরিবহন পুল ছাড়াও পাঁচ একর জায়গা নিয়ে প্রতিষ্ঠা হবে আইটি পার্ক।

কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সারোয়ার মুর্শেদ চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গণপূর্তের এই বিশাল জায়গার ওপর আইটি পার্কের পাশাপাশি রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ একটি শিশুপার্ক, শিশু একাডেমি এবং পরিবহন পুল নির্মাণ করার জন্য তাগিদ দিয়েছেন। সেই অনুযায়ী পদক্ষেপও নেয়া হচ্ছে।

শহরবাসী দীর্ঘদিন ধরে একটি শিশুপার্ক নির্মাণের জন্য মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচীর মাধ্যমে দাবি জানিয়ে আসছিলেন। কারণ শহর ও শহরতলির শিশুদের একটু নির্মল আনন্দ করার মত কোন শিশুপার্ক ছিল না। ফলে সকালে স্কুলে গিয়ে স্কুল থকে ফিরে দিনরাত শিশুরা ঘরের ভেতর বা মহল্লায় খাঁচার পাখির মত বন্দী সময় কাটাতো। কোন বিনোদন বা মনটা সতেজ করার মত উপায় ছিল না।

অবশেষে রাষ্ট্রপতির সদিচ্ছায় একটি শিশুপার্ক নির্মাণ হতে যাচ্ছে। অভিভাবকরা একটু স্বস্তির নিশ্বাস ফেলার সুযোগ পাবেন, শিশুরাও আনন্দ উল্লাস করে ছোট্ট দেহে যেন নতুন প্রাণের সন্ধান পাবে।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: