কথা রাখলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১১:৫৪:০০

ফাইল ফটো

পাকিস্তানের নব-নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মসনদে বসার পর তার প্রথম ভাষণে বলেছিলেন, তিনি সরকারী ব্যয় হ্রাস করবেন। তার এই ব্যয় সংকোচনের নীতির অংশ হিসেবে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অতিরিক্ত গাড়িগুলো বিক্রি করার ঘোষণা দেন। ইমরান খান প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন রেখে সামরিক সচিবের বাড়িতে বসবাসের কথাও বলেন।

যে কথা দিয়েছিলেন তা অক্ষরে অক্ষরে পূরণ করে চলেছেন পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জয়ী এই ক্রিকেটার। কার্যালয়ের বিলাসবহুল ১০২টি গাড়ির মধ্যে ৬১টি নিলামে বিক্রি করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রশাসক মেজর আসিফ সোমবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিলামে মোট ১০২টি গাড়ি তোলা হয়েছিল। যার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিলো এক বিলিয়ন রুপি। এগুলোর মধ্যে ৬১টি গাড়ি বিক্রি হয়েছে। আর যে গাড়িগুলো নিলামে বিক্রি হয়নি সেগুলোর মূল্য পুনরায় নির্ধারণ করবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।

তিনি আরও জানান, এই ৬১টি গাড়ি বিক্রি থেকে প্রাপ্ত ১২০ মিলিয়ন রুপি জাতীয় কোষাগারে জমা হবে। তাছাড়া বোমপ্রুফ গাড়িগুলো থেকে ১৬০ মিলিয়ন রুপির বেশি মূল্য আশা করছে সরকার।

নিলামে তুললেও দুটি বোমপ্রুফ গাড়ির ক্রেতা পাওয়া যায়নি জানিয়ে মেজর আসিফ আরও বলেন, নিলামে তোলা ২৭টি বুলেটপ্রুফ গাড়ির মধ্যে মাত্র সাতটি গাড়ি বিক্রি হয়েছে।

এর আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় দেশটির তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, প্রথম ধাপে নিলামে তোলা গাড়িগুলো বাজার দর অনুযায়ী বিক্রি হয়েছে। এসময় তিনি নিলামে ৭০টি গাড়ি বিক্রি হয়েছে বলে জানান। বলেন, এ নিলাম হবে দুটো ধাপে। প্রথম ধাপে ৩৪টি গাড়ি বিক্রি হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে আমদানিকৃত ৪১টি গাড়ি বিক্রি করা হবে।

বিডি২৪লাইভ/ওয়াইএ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: