ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পদকে উপস্থাপকের প্রশ্ন

ছাত্রদল নেতাকে ধরিয়ে দিলেন, আপনি কী পুলিশ?

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৮:১৬:৫৮

ছবিঃ সংগৃহীত

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, জ্বালাও-পোড়াও সময় আমি নিজে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শাহাদাতকে আমি পেট্রোল বোমাসহ ধরে পুলিশে দিয়েছি। এই জন্য আমরা পুরস্কারও পেয়েছি।

রবিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাতে বেসরকারি টেলিভিশন ইন্ডিপেন্ডেন্ট এর জনপ্রিয় টকশো ‘আজকের বাংলাদেশ’ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

আলোচনার বিষয় ছিল ‘কার দরকার ডাকসু’ । টকশোর উপস্থাপনায় ছিলেন খালিদ মুহিউদ্দিন। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড.এ এস এম মাকসুদ কামাল, ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিএম নাজিম মাহমুদ ও ছাত্র ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক লিটন নন্দী প্রমুখ।

ছাত্রদলের একজনকে ধরিয়ে দিয়েছিলেন। কেন ধরিয়ে দিয়েছিলেন? আপনি কী পুলিশ? উপস্থাপকের এমন প্রশ্নের জবাবে গোলাম রাব্বানী বলেন, একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে যখন পেট্রোল বোমা ও ককটেল নিয়ে আসবে, আমি আইনের ছাত্র। আমার রাইট আছে তাকে আটক করে পুলিশে দেওয়ার। যাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে এটা পুলিশ ও ছাত্রদলের ব্যাপার, ছাত্রলীগ কোন ইস্যু না।

তিনি আরও বলেন, আমরা যখন বুয়েটে ছিলাম, তখন বুয়েটে মিছিল করে (ঝটিকা মিছিল বের করে) একটা মারার পরে আমরা ধাওয়া করে ছিলাম। ওদের ১০ থেকে ১২ জন ছিল। কিবরিয়া ও শাহাদাত দেওয়াল টপকাতে গিয়ে পারেনি। তারা দুইটি বোমা ফেলে দেওয়াল টপকাতে গিয়েছিলো।

আপনার দিকে মারল না কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ওদের (ছাত্রদলের) ১০ থেকে ১২ জন ছিল। শাহাদাতকে যখন মানুষ ঘিরে ফেলে ছিল তখন আমি উদ্ধার করে নিয়ে গিয়েছিলাম। পেট্রোল বোমাটা ফেলে সে পালানোর চেষ্টা করে ছিল। শাহাদাতকে পুলিশে দেওয়ার কারন হলো, তার লাইফ ঝুকিতে ছিল। তাকে সেইভ করার জন্য পুলিশে দেওয়া হয়েছিল।

বিডি২৪লাইভ/এসআই/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: