শাহিনুর রহমান শাহিন

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

দুর্ঘটনার শঙ্কায় বঙ্গমাতা বেগম মুজিব হলের ছাত্রীরা

২১ অক্টোবর, ২০১৮ ০৭:০০:০০

ছবি: সংগৃহীত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ছাত্রীদের বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল প্রতিষ্ঠার দেড় বছর পেরিয়ে গেলেও এখনও রান্নার জন্য ডাইনিংয়ে গ্যাস সংযোগ দিতে পারেনি হল প্রশাসন। নেই খাবারের জন্য নিদিষ্ট ডাইনিং ব্যবস্থাও। ফলে হলটির কয়েক‘শ ছাত্রী অবৈধ্য পন্থায় বিদ্যুৎতের সাহায্যে হিটারে রান্না করছেন।

এতে একদিকে যেমন হলের বিদ্যুৎ বিল অধিকহারে বৃদ্ধি পাচ্ছে অন্যদিকে ছাত্রীদের রয়েছে দুর্ঘনার শঙ্কা। যেকোন সময় হিটারের আগুন থেকে ঘটতে পারে গুরুতর দুর্ঘটনা। হলের ছাত্রীদের অভিযোগ প্রশাসনের গাফলতি এবং সুষ্ঠু নজরদারির অভাবে এখন পর্যন্ত গ্যাস সংযোগ দেওয়া হয় নি। ফলে বিপাকে হলের কয়েক‘শ ছাত্রী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয়। প্রতিষ্ঠাকালীন থেকে প্রায় ৮৫০ জন ছাত্রী অবস্থান করছেন হলটিতে। হলটিতে ছাত্রীদের আবাসন ব্যবস্থা করার পরপরেই রান্নার জন্য গ্যাস সংযোগ ও খাবারের ডাইনিংয়ের ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল হল প্রশাসন। কিন্তুু প্রতিশ্রুতি দিয়েও তা রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে হল প্রশাসন। হলের ছাত্রীদের জন্য ক্যান্টিনের ব্যবস্থা থাকলেও ছিল না গ্যাস সংযোগ। গত মাসে ক্যান্টিনে গ্যাস সংযোগ দিলেও ডাইনিংয়ে গ্যাস সংযোগ দেয়া এখনো হয় নি। এদিকে ক্যান্টিনের খাবার মূল্য অন্যান্য হলের ক্যান্টিনের থেকে বেশি বলে অভিযোগ ছাত্রীদের। ফলে ছাত্রীরা কোন উপায় না পেয়ে খাবারের জন্য বটতলা (খাবারের নিদিষ্ট স্থান) আসেন নয়তো হিটার ব্যবহার করে রান্না করেন।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের স্নাতক (সম্মান) চতুর্থ বর্ষের বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এক আবাসিক ছাত্রী বলেন, হল প্রশাসন উদাসীন। ডাইনিংয়ে গ্যাস সংযোগের বিষয়ে একাধিকবার অবগত করা হলেও আশানুরুপ কোন উদ্যোগ নেন নি। তাই দুর্ঘটনা আশঙ্কা নিয়ে বাধ্য হয়ে হিটারে রান্না করি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সরকার ও রজনীতি বিভাগের এক আবাসিক ছাত্রী বলেন, হলে নেই কোন ডাইনিংয়ের ব্যবস্থা। ৪৬ ব্যাচের ছাত্রীদের থাকার জায়গা হিসেবে ডাইনিং রুম বরাদ্দ দিয়েছে প্রশাসন। ফলে দুর্ঘটনা ঝুঁকি নিয়ে আমার মতো অনেকে হিটারে রান্না করেন।

এদিকে ওই হলে গত মাসে হল প্রশাসন ছাত্রীদের থাকার জন্য ডাইনিং রুম বরাদ্দ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। এতে ডাইনিং চালুর যে সম্ভাবনা ছিল তা এখন অনেকাংশে হচ্ছে না বলে মনে করছেন ছাত্রীরা।

বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের আবাসিক ছাত্রী নিগার সুলতানা বলেন, হলের ডাইনিংয়ে গ্যাস সংযোগ নেই। তাই নিরাপত্তা ঝুঁকি নিয়ে অনেকে হিটারের সাহায্যে রান্না করে। কারও কিছু হয়ে গেলে তার দায়ভার কে নেবে?

এ বিষয়ে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান বলেন, ‘গ্যাস সংযোগের লাইন প্রস্তুুত আছে। ইতিমধ্যে আমরা ক্যান্টিনে গ্যাসের সংযোগ দিয়েছি। এখন শুধু ডাইনিংয়ে লাইন সংযোগ দিলে হয়। আশা করি আগামী এক মাসের মধ্যে গ্যাস সংযোগের ব্যবস্থা হয়ে যাবে। ডাইনিংয়ে ৪৬ ব্যাচের ছাত্রীদের থাকার জায়গা বরাদ্দ করার বিষয়ে তিনি বলেন, যেসব ছাত্রীর পড়াশোনা শেষ তারা হল না ছাড়ায় আবাসন সংকট দূর হচ্ছে না। হল প্রশাসন খুবই তৎপর। তারা হল ছেড়ে দিলেই ডাইনিংয়ে অবস্থানরত ছাত্রীদের রুম বরাদ্দ দেওয়া হবে।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: