শাহিনুর রহমান শাহিন

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

‘সেভ দ্যা ন্যাচার অফ বাংলাদেশ’র কমিটি ঘোষণা

২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১৫:২৪:০১

ছবি: সংগৃহীত

পরিবেশ প্রকৃতি, জীব বৈচিত্র, জলবায়ু পরিবর্তন ও বন্য প্রাণির সুরক্ষায় ‘সেভ দ্যা ন্যাচার অফ বাংলাদেশ’ নামক একটি সংগঠনের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আংশিক কমিটি আগামী এক বছরের জন্য ঘোষণা করা হয়েছে।

সোমবার (২২ সেপ্টেম্বর) ‘সেভ দ্যা ন্যাচার অফ বাংলাদেশ’ এর কেন্দ্রীয় কমিটি ৬০ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি অনুমোদন দেয়। নবগঠিত কমিটিতে জাবি শাখার সভাপতি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের (৪৩ তম ব্যাচ) তৌফিক আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের (৪৩ তম ব্যাচ) আবদুল্লাহ আল আজিম সৈকতকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

সংগঠনটি প্রতিষ্ঠাকাল থেকেই বাংলাদেশের প্রকৃতি রক্ষা এবং পাহাড় ও নদী রক্ষায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। প্রায় ১৪ বছরের অধিক সময় ধরে সারা বাংলাদেশে পরিবেশ সুরক্ষায় কাজ করছে সংগঠনটি। প্রাকৃতিক পরিবেশে জীববৈচিত্র্যর সুষ্ঠু আবাসস্থল ও মানুষের বসবাসযোগ্য পরিবেশ সৃষ্টির জন্য নানা উদ্যোগ অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছে সেভ দ্যা ন্যাচার অফ বাংলাদেশ।

তারই ধারাবাহিকতায় প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ, প্রকৃতি ও জীববৈচিত্র্য রক্ষায় এই কমিটির দায়িত্ব পেয়েছেন।

সংগঠনটির নবাগত সভাপতি তৌফিক আহমেদ বলেন, প্রতিবছর দূর-দুরান্তের বিভিন্ন দেশ থেকে থেকে ক্যাম্পাসে অতিথি পাখির আগমন ঘটে। অতিথি পাখিদের সুষ্ঠু বিচরণ ক্ষেত্র ও নিরিবিলি পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য আমরা কাজ করবো। অতিথি পাখি ছাড়াও নানা প্রজাতির উপকারী জীবজন্তুুর আবাসস্থল এই ক্যাম্পাস। সেই সব প্রজাতিদের রক্ষা করতেও আমরা তৎপর থাকবো।

সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল আজিম সৈকত বলেন, উন্নত দেশগুলা যেখানে বাতাসে কার্বন ডাই-অক্সাইড নিরসনে ব্যস্ত আমরা কেন পিছিয়ে থাকবো। বাতাসে কার্বনের পরিমাণ কমিয়ে আনতে দেশরত্ন শেখ হাসিনা পরিবেশ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন, তারই ভ্যানগার্ড হিসেবে ‘সেভ না ন্যাচার অব বাংলাদেশ’ সারা দেশে কাজ করে যাচ্ছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের সোনার বাংলা বিনির্মাণে এদেশের পরিবেশ ও প্রকৃতি রক্ষা করতে সেভ দ্যা ন্যাচার অফ বাংলাদেশ এর প্রত্যেকটি কর্মী সারা দেশে কাজ করে যাচ্ছেন।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: