প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

প্রেসক্লাবে হানিফ

‘ড. কামাল হোসেন লন্ডনের ভয়ে কথা বলতে পারছেন না’

১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ১৫:২৯:০০

ছবি : ফাইল ফটো

গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন লন্ডনের ভয়ে কথা বলতে পারছেন না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

আজ শনিবার (১৭ নভেম্বর) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু-বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

ওই আলোচনা অনুষ্ঠানে হানিফ বলেন, ড. কামাল হোসেন ১৯৮১ সালের ১৫ নভেম্বর বিএনপি সরকারের আমলে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে রাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচন করে হেরেছিলেন। তখন বিএনপির বিরুদ্ধে নানা ধরনের কথা বলেছিলেন। আর সেই ড. কামাল হোসেন এখন বিএনপির হয়ে রাজপথে নেমেছেন। তার কোনো নীতি-আদর্শ নেই বলেই জনগণ মনে করে।

সম্প্রতি নয়াপল্টনের ঘটনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলা হয়েছে। তাদের গাড়ি পোড়ানো হয়েছে। তবে ড. কামাল হোসেন এ নিয়ে কোনো কথা বলছেন না। কেননা লন্ডনের ভয়েই তিনি কথা বলতে পারছেন না।

হানিফ বলেন, ‘ড. কামাল হোসেন সাহেব উনি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা হিসেবে থাকলেও সকল কলকাঠি নাড়ে লন্ডন থেকেই। ড. কামাল হোসেনও ওই লন্ডনের ভয়ে হয়তো উনি প্রতিবাদ করেন নাই। অথবা অন্য কোনো মুলার লোভে উনি হয়তো এই ঘটনার নিন্দাটা করতে বা এটার জন্য দুঃখ প্রকাশ করতেও উনি বোধ করেন নাই।’

এ ঘটনায় একইভাবে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে সবাই ভদ্রলোক ও সজ্জন হিসেবে মনে করেন। তিনিও নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় নির্লজ্জ মিথ্যাচার করেছেন। তিনিও লন্ডনের ভয়েই কোনো কথা বলতে পারছেন না। বলেও মন্তব্য করেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

এ সময় ড. কামাল হোসেনকে ইঙ্গিত তিনি বলেন, বিএনপি রাজনৈতিক সঙ্কট থেকে মুক্তি পেতে জনাধিকৃত নেতাকে ভাড়াকে করেছে।

বিডি২৪লাইভ/টিএএফ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: