রফিকুল ইসলাম

বান্দরবন প্রতিনিধি

লামায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ, শতবর্ষী গাছ চুরি

১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০৬:০০:০০

ছবি: প্রতিনিধি

বান্দরবানের লামায় রাতের আধাঁরে চুরি করে সড়কের পাশের শতবর্ষী গাছ কেটে ফেলে একটি চিহ্নিত গ্রুপ। এ সময় গাছটি বিদ্যুতের ৩৩ হাজার ও ১১ হাজার কেভির মেইন লাইনের পড়লে বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে লামা-আলীকদম উপজেলার বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

রোববার (১৮ নভেম্বর) ভোর রাতে লামা-চকরিয়া সড়কের মধুঝিরিস্থ লামা পৌরসভার অফিস সংলগ্ন স্থান হতে জনৈক জালাল আহমদের নেতৃত্বে একটি গাছ চোর গ্রুপ গাছটি কেটে ফেলে।

খবর পেয়ে লামা বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক প্রকৌশলী মো. সাজ্জাদ সিদ্দিক এবং সড়ক ও জনপদ বিভাগের লামার ওয়ার্ক সুপারভাজার রবি জয় চাকমা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এ সময় কাটা সওজ বিভাগ কর্তনকৃত শতবর্ষী গাছটি ও বিদ্যুৎ বিভাগ একজন গাছ চোরকে আটক করেন।

লামা বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক প্রকৌশলী মো. সাজ্জাদ সিদ্দিক বলেন, মধুঝিরি ও নুনারঝিরি এলাকার ৫ জনের একটি গাছ চোরের গ্রুপ ভোর রাতের দিকে শতবর্ষী বিশাল আকারের একটি তুলা গাছ চুরি করে নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে কেটে ফেলে। গাছটি কাটার সময় মেইন ২টি বিদ্যুৎ লাইনের উপর পড়ে। এসময় ৩৩ হাজার কেভি লাইনের চার পয়েন্টে তার ছিড়ে যায় এবং বিদ্যুতের দুটি খাম্বার ক্লোজ আর্ম ও খাম্বা বাঁকা হয়ে যায়।

এছাড়া পাশের ১১ হাজার কেভির বিদ্যুৎ লাইনের একটি ইনসেলেটর ভেঙ্গে যায়। আমরা ঘটনাস্থল থেকে এলাকার মো. আলাউদ্দিন নামের একজনকে আটক করেছি। আমরা সড়ক ও জনপদ বিভাগের কর্মকার্তদের সাথে আলাপ করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করব।

আটক আলা উদ্দিন প্রতিবেদককে বলেন, লামা পৌরসভার ৭নং ওর্য়াডের মধুঝিরি এলাকার মৃত জলিল আহম্মদের পুত্র মো. জালাল আহম্মদের কাছ থেকে গত শনিবার চার হাজার টাকায় ক্রয় করে নিয়েছি। শনিবার রাত চারটার সময় আরো তিনজন শ্রমিক নিয়ে জালালের উপস্থিতিতে আমি তুলা গাছটি কাটার সময় বিদ্যুতের লাইনের উপর পড়লে তার ছিঁড়ে যায়।

এ বিষয়ে লামা সড়ক ও জনপদ বিভাগের লামা অফিসের ওয়ার্ক সুপারভাইজার রবি জয় চাকমা বলেন, সড়ক বিভাগের শতবর্ষী গাছ কেটে ফেলার সংবাদ শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে কাটা গাছটি জব্দ করি। এ ঘটনায় থানায় মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। সড়কের গাছ কাটার বিষয়ে পূর্বেও লামা থানায় আরো একটি মামলা করা আছে।

এ ব্যাপারে লামা থানার অফিসার ইনর্চাজ অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, ঘটনাটি শুনছি। আমি তাদের যোগাযোগ করেছি। তারা এই বিষয়ে থানায় অভিযোগ দিবেন বলে জানিয়েছেন।

বিডি২৪লাইভ/এমকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: