আরেফিন আল ইমরান

ডেস্ক কন্ট্রিবিউটর

যে কারণে দলে নেই আবু জায়েদ

১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ১০:২১:১২

ছবি: সংগৃহীত

সিলেট টেস্টে আহামরি পারফর্ম করেছেন তা বলা যায়না। তবে সম্ভাব্য একাদশের বাইরে খুব বেশি ক্রিকেটারকে রেখে স্কোয়াড ভারী করতে চাননি নির্বাচকেরা। মূলত এ কারণেই চট্টগ্রাম টেস্টের বাংলাদেশ স্কোয়াডে জায়গা পাননি সিলেটের ছেলে আবু জায়েদ চৌধুরী। এই পেসারসহ সম্ভাব্য অন্যদের টেস্ট দলের ড্রেসিং রুমে বসিয়ে না রেখে বিসিএল খেলার সুযোগ দিতেই এই সিদ্ধান্ত, জানালেন হাবিবুল বাশার।

টেস্ট ক্যারিয়ারের শুরুটা সম্ভাবনাময় হলেও খুব বেশি নজর কাড়তে পারেননি তিনি। সঙ্গত কারণেই প্রথমে একাদশ থেকে, এবার স্কোয়াড থেকেও বাদ পড়লেন আবু জায়েদ। হাবিবুলের মতে, দুটিই আসলে একসূত্রে গাঁথা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে আবু জায়েদকে বাইরে রাখা হয়েছিল টিম কম্বিনেশনের কারণে। একাদশে মুস্তাফিজুর রহমানের মতো সুইং ও কাটার করানোর মতো পেসার থাকায় দ্বিতীয় পেসারকে দল চাইছিল ভিন্ন ঘরানার একজনকে। সুইং বোলার আবু জায়েদকে বাইরে রেখে তাই খেলানো হয়েছিল তুলনামূলক গতিময় ও আগ্রাসী পেসার সৈয়দ খালেদ আহমেদকে। নতুন এই তরুণকে নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা আছে টিমের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের স্কোয়াডেও আছেন এই দুজন। মুস্তাফিজ যেহেতু খেলবেন, দ্বিতীয় পেসার হিসেবে খালেদ আবারও হয়ে উঠছেন প্রথম পছন্দ। হাবিবুল জানালেন, এ কারণেই রাখা হয়নি আবু জায়েদকে। খালেদের গতি ও নতুন বলে আগ্রাসী মনোভাবটাও সবার বেশ পছন্দ।

এ বিষয়ে নির্বাচক হাবিবুল বাশার জানান. “আবারও টিম কম্বিনেশনের কথাই বলতে হবে। দুই পেসারের বেশি আসলে চট্টগ্রামের খেলানোর সম্ভাবনা নেই। মুস্তাফিজের সঙ্গে খালেদই এগিয়ে থাকবে। স্কোয়াড যদি ১৪ বা ১৫ জনের হতো, রাহি (আবু জায়েদ) নিশ্চিতভাবেই থাকতো। কিন্তু যেহেতু বিসিএল শুরু হচ্ছে, অযথা বাইরে বসিয়ে রাখার জন্য খুব বেশিজন নিতে চাই না। সম্ভাব্য একাদশের বাইরে স্রেফ সতর্কতার কারণে আর দুইজন রাখা হয়েছে স্কোয়াডে।”

তারপরও আবু জায়েদ রাহিকে নিয়ে আশার কথা জানান তিনি, “ওর ভেঙে পড়ার কারণ নেই। টিম কম্বিনেশনের ব্যাপারটি আমরা ওকে বুঝিয়ে বলেছি। ওর ধরনের বোলারও শিগগিরই আবার দরকার হবে আমাদের, তখন ওর ডাক পড়বে। এখানে বসে না থেকে বিসিএলে ম্যাচ খেললে ওরই ভালো হবে।”

বিডি২৪লাইভ/এএআই

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: