প্রেমিকাকে খুশি করতে যুবকের অদ্ভুতকাণ্ড! অতঃপর...

২০ নভেম্বর, ২০১৮ ০৯:০২:৪৯

ছবি: সংগৃহীত

বয়সে নিজের চাইতে ১০ বছরের বড়। তাতে কী। বান্ধবী বলে কথা। যেকোন শখতো মেটাতেই হবে। সামান্য ইলেক্ট্রিশিয়ানের কাজ করে সেই শখ মেটানো সম্ভব ছিল না তার। তাই বেছে নিতে হল অন্য পথ। বান্ধবীকে খুশি করতে সাবেক শিক্ষকের স্ত্রীর গয়না চুরি করল এক যুবক।

কিন্তু রক্ষা পেলেন না। পুলিশের হাতে ধরা পড়ল সেই কীর্তিমান ছাত্র। আর বান্ধবীকে দেয়া উপহারও উদ্ধার করল পুলিশ।

এ ঘটনায় কুঁদঘাটের স্যার নৃপেন্দ্রনাথ ইনস্টিটিউশনের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কাজল কুমার সিনহা (৬২) গত ১৬ নভেম্বর রিজেন্ট পার্ক থানায় চুরির অভিযোগ করেন।

অভিযোগে তিনি জানান, গত ১৪ নভেম্বর আলমারি খুলে তাঁর স্ত্রী দেখেন সমস্ত গয়নার বাক্স ফাঁকা। খোয়া গিয়েছে ১৬০ গ্রাম সোনার গয়না। যার দাম প্রায় ৫ লাখ টাকা। অথচ তার আগের দিনও সেখানে গয়না ছিল।

এরপরই পুলিশ এ ঘটনায় তদন্তে নামে। আর তদন্তে পুলিশ নিশ্চিত হয় যে আলমারি খুলেই গয়না চুরি করা হয়েছে। এ ঘটনায় সন্দেহ করছিলেন বাড়ির পরিচারিকাকে। কিন্তু তার কাছ থেকে তেমন কিছু উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এরপর ঘটনার মোড় নেয় অন্য দিকে।

কাজল বাবু জানান, চুরির আগে বাইরের লোক বলতে শুধু তার এক সাবেক ছাত্র এসেছিলেন। অমিত মজুমদার নামে ওই ছাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল কাজল বাবুর।

তিনি বলেন, ‘অমিত পেশায় ইলেক্ট্রিশিয়ান। বাড়িতে কোনও কাজ থাকলে ওকেই ডাকতাম। কালীপুজোর আগেও অমিত এসে কাজ করেছিল।’

এরপর পুলিশ অমিতকে টানা জিজ্ঞাসাবাদের পর গয়না চুরির কথা স্বীকার করে সে।

এ বিষয়ে তদন্তাকারীরা বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে অমিতের কাছ থেকে অর্চনা মল্লিক নামে বেহালার এক বিবাহিত মহিলার সন্ধান পায়। অর্চনার বাড়িতে তল্লাশি করেই পাওয়ায় যায় চোরাই গয়না।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ইলেক্ট্রিশিয়ান অমিতের সঙ্গে অর্চনার সম্পর্ক ছিল। অর্চনাকে খুশি করতেই শিক্ষকের বাড়ি থেকে গয়না চুরি করে সে। কাজের ফাঁকে চাবি হাতিয়ে খুলে ফেলে আলমারি। তার পর গয়না নিয়ে যায়। পুলিশ দু’জনকেই গ্রেফতার করেছে।

বিডি২৪লাইভ/এএইচ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: