যে চার নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থাকে চায় না আ’লীগ

১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ , ১০:৫৭:১২

ছবিঃ সংগৃহীত

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নিবন্ধনে থাকা চারটি দেশিয় সংস্থাকে নির্বাচন পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব না দেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছে আওয়ামী লীগ।

বুধবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে অাগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এ আবেদন জানায় আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচটি ইমাম।

সিইসির সঙ্গে সাক্ষাতের পর এইচটি ইমাম সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচন কমিশনে ১১৮টি নিবন্ধিত নির্বাচন পর্যবেক্ষক রয়েছে। এদের মধ্যে চারটি সংস্থা রাজনীতির সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত। তারা নির্বাচনে পর্যবেক্ষণ করতে গিয়ে প্রভাবিত করতে পারে।

তিনি জানান, এসব পর্যবেক্ষক সংস্থা হলো ডেমোক্রেসি ওয়াচ। যার প্রধান হচ্ছে শফিক রেহমানে স্ত্রী তালেয়া রহমান। খান ফাউন্ডেশন ড. আব্দুল মঈন খানের স্ত্রীর। বগুড়ার লাইট হাউজ তারেক রহমানের। আর আদিলুর রহমানে প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ মানবাধিকার পরিষদ।

তিনি বলেন, এরা সবাই রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। এদেরকে পর্যবেক্ষণের দায়িত্ব দিলে বিপর্যয় ঘটতে পারে। তাই নির্বাচন কমিশনকে আমরা বলেছি যেন, নিরপেক্ষ সংস্থাকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের অনুমতি দেন।

এনজিও ব্যুরোর নিবন্ধনের মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে সম্প্রতি অধিকার নামে একটি সংস্থার নিবন্ধন বাতিল করে নির্বাচন কমিশন।

এইচটি ইমাম বলেন, অধিকার সংগঠনটিই আদিলুর রহমানের। সেটির নিবন্ধন বাতিল হলে এখন সে বাংলাদেশ মানবিকার পরিষদ চালাচ্ছে।

এর আগে বিএনপি, জানিপপ ও এর প্রধান ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ থেকে দূরে রাখার অনুরোধ জানায় আওয়ামী লীগ।

অন্তত ৯টি বিদেশি সংস্থা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি দেশ সংসদ নির্বাচন পর্যবেক্ষণের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

যদিও ইউরোপীয় ইউনিয়ন আগে বলেছে, তারা কেবল বিশেষজ্ঞ টিম পাঠাবে। নির্বাচন পর‌্যবেক্ষণ করবে না। আর নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত দেশিয় ১১৮টি সংস্থার সবাই পর‌্যবেক্ষণের আগ্রহী।

বিডি২৪লাইভ/এসএস

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: