নির্বাচনী জনসভায় কৃষিমন্ত্রী

‘দেশে উন্নয়ন করে না, তারা কোন মুখে ভোট চান’

১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ , ০৬:৪৯:০৫

ছবি: প্রতিনিধি

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেরপুর- (নকলা-নালিতাবাড়ী) আসনের আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মনোনিত প্রার্থী এবং কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, ‘বিএনপি অনেক বাহানা করে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেছে। এটা ভাল, কিন্তু তারা যখন ক্ষমতায় ছিলেন তখন দেশের উন্নয়নের জন্য কিছুই করেননি। তারা এখন কোন মুখে মানুষের কাছে ভোট চান।’

মতিয়া চৌধুরী আজ শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে তার নির্বাচনী এলাকা শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার পলাশীকুড়া জনতা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত এক নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যদান কালে এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করার পর শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বিদেশ থাকার কারনে প্রাণে বেঁচে যান। এই দীর্ঘ সময়ে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসতে পারেনি। এমনকি শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানাকেও দেশে আসতে দেয়া হয়নি।

দীর্ঘ ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করেন। এরপর থেকেই আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করার জন্য দেশের উন্নয়নে কাজ শুরু করে। আবার আপনারা ২০০১ সালে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের অত্যাচার নির্যাতন করেছেন। দেশের উন্নয়নে কিছুই করেননি। অপরদিকে শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসেন দেশের মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য।

এসময় মতিয়া চৌধুরী উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আমি কি আপনাদের সেবা ও এলাকার উন্নয়ন করতে পেরেছি? তখন সকলেই হাত তুলে উন্নয়নের স্বীকৃতি জানান। পরে তিনি উপস্থিত সকলকে বলেন, যদি উন্নয়ন করে থাকি তাহলে আবার নৌকা মার্কায় ভোট চাই।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জিয়াউল হোসেন মাষ্টার, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সবুর, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক গোপাল সরকার, ট্রাইবাল চেয়ারম্যান মি. লুইস নেংমিনজা, কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব আজাদ মিয়া, আলহাজ্ব জামাল উদিন, জাতীয়পার্টীর জেলা কমিটির সহ-সভাপতি শওকত সাঈদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ বকুল, ভাইস চেয়াম্যান আছমা আক্তার, আব্দুল হালিম উকিল, যুবনেতা জাহাঙ্গীর আলম ও পোড়াগাঁও যুবলীগ সভাপতি মোরাদুজ্জামান মোরাদহসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: