খালিদ হাসান

বগুড়া প্রতিনিধি

‘এলাকায় ধানের শীষের কোন পোস্টার নেই’

১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:৫১:০০

ছবি: প্রতিনিধি

সরকারের পায়ের নিচে মাটি নেই, এ কারণে প্রশাসনসহ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্বাচনে তাদের পক্ষে ব্যবহার করছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও বগুড়া-২ (শিবগঞ্জ) আসনে ধানের শীষের প্রার্থী মাহমুদুর রহমান মান্না।

বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) বেলা ১২টায় বগুড়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, 'শুধু তাই নয় আইনের কান দুমড়ে মুচড়ে ৩০-৩৫টি আসন তাদের নিয়ন্ত্রণে নেয়ার চেষ্টা করছে সরকার।'

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, 'বগুড়া-২ নির্বাচনী এলাকায় ধানের শীষের কোন পোস্টার রাখা হচ্ছে না। মহাজোটের লাঙ্গল মার্কার প্রার্থীর কর্মী সমর্থকরা ট্রাক ভাড়া করে নির্বাচনী এলাকা ঘুরে ধানের শীষের হাজার হাজার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা শুরু করেছে।'

তিনি আরও বলেন, 'শিবগঞ্জের নগর বন্দরে ধানের শীষের প্রধান নির্বাচনী কার্যালয় ছাড়াও মোকামতলা ও চন্ডিহারায় নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করা হয়েছ। পুলিশ মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে সরাসরি কাজ করছে। মহাজোটের প্রার্থী নিজে বিভিন্ন নির্বাচনী সভায় বলছেন শিবগঞ্জে ধানের শীষের কোন পোস্টার থাকবে না। ধানের শীষের প্রার্থীকে এলাকায় ঢুকতে দেয়া হবে না।'

তিনি আরও বলেন 'গত ১৭ ডিসেম্বর রাতে ভায়ের পুকুরে মহাজোট প্রার্থীর নির্বাচনী মটর সাইকেল বহরে যে হামলার ঘটনা ঘটেছে সেটা সম্পূর্ণ সাজানো। ওই রাতের ঘটনায় থানায় যে ৩৪ জনের নামে মামলা করা হয়েছে তারা প্রত্যেকেই ধানের শীষের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির সদস্য।'

হামলা, মামলা, ভয়ভীতি উপেক্ষা করে নির্বাচনী মাঠে থাকছেন এবং ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত লড়াই করার ঘোষণা দেন মান্না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শিবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার রহমান মতিন, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমআর ইসলাম স্বাধীন ছাড়াও বিএনপি শিবগঞ্জ উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: