প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

আজ হাই ভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি সাকিব-মাশরাফি

১১ জানুয়ারি ২০১৯ , ০৮:৪১:১১

ছবি: ইন্টারনেট

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দর্শকদের জন্য অপেক্ষা করছে সাকিব আল হাসান এবং মাশরাফি বিন মর্তুজার লড়াই। হাই ভোল্টেজ ম্যাচে এবারের আসরে প্রথম বারের মত মুখোমুখি হতে যাচ্ছে আসরের দুই শিরোপা প্রত্যাশী দল ঢাকা ডাইনামাইটস এবং রংপুর রাইডার্স।

শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) বেলা দুইটায় মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুই ফাইনালিস্টদের এই লড়াই।

মাঠের লড়াইয়ে শক্তির বিচারে কোন দলই কারও থেকে পিছিয়ে নেই। দুই দলের সামনে সুযোগ রয়েছে টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করার। ৪ পয়েন্ট নিয়ে ঢাকা এবং রংপুর আছে যথাক্রমে আছে টেবিলের প্রথম এবং দ্বিতীয় স্থানে।

রান রেটের বিচারে অবশ্য এগিয়ে আছে সাকিবের ঢাকা। যদিও রংপুরের চেয়ে এক ম্যাচ কম খেলেছে দলটি। কোন ম্যাচ না হারার কারণে শীর্ষে আছে ঢাকা, প্রথম ম্যাচে হারলেও পরের দুই ম্যাচে ছন্দে ফেরা রংপুর আছে দ্বিতীয় স্থানে।

ব্যাটিং, বোলিং এবং ফিল্ডিং তিন বিভাগেই দুই দলই সমান শক্তিশালী। যেকারণে শুক্রবারের এই ম্যাচটিতে হতে পারে হাই স্কোরিং। জয়ের জন্য মুখিয়ে থাকবে দুই দলই শেষ পর্যন্ত মাঠের লড়াইয়ে কার জয় হয় সেটাই দেখার বিষয়।

দুই দলেরই টপ অর্ডার শক্তিশালী। ঢাকার টপ অর্ডারে বড় ইনিংস খেলার জন্য আছেন ফর্মে থাকা দুই ওপেনার হজরত উল্লাহ জাজাই এবং সুনিল নারিন। দুজনই দুই ম্যাচে দলকে ভালো সূচনা এনে দিয়েছেন। সেই সঙ্গে মিডল অর্ডারে কাইরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল এবং সাকিব আল হাসানরা আছেন ব্যাটিংয়ের শক্তি বাড়ানোর জন্য।

বোলিংয়ের রুবেল হোসেন, রাসেল, নারিন এবং সাকিবরা থাকায় রংপুরের ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে তাদের বিপক্ষে। প্রথম দুই ম্যাচের একাদশ নিয়েই মাঠে নামতে চাইবে ঢাকা। উইনিং কম্বিনেশন ধরে রেখেই রংপুরকে আটকে দেয়ার লক্ষ্য থাকবে তাদের। 

অবশ্য রংপুরের হয়ে ঝড় তুলতে মুখিয়ে আছেন ক্রিস গেইল। গেল বারের ফাইনালে ঢাকাকে একাই উড়িয়ে রংপুরকে শিরোপা এনে দিয়েছিলেন তিনি।  সেই সঙ্গে রাইলি রুশো, মোহাম্মদ মিথুন এবং রবি বোপারারাও আছেন রংপুরের ব্যাটিং শক্তি বাড়ানোর জন্য। 

বোলিংয়ে মাশরাফি বিন মুর্তজা আছেন দারুন ছন্দে। শেষ ম্যাচে কুমিল্লার মত শক্তিশালী দলকে একাই উড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনি। দারুণ বোলিং করে ক্যারিয়ার সেরা ফিগার ১১ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেয়া কাপ্তানের উপরেই বোলিংয়ে আস্থা রাখবে রংপুর।

গেল আসরের ফাইনালে জয় তাদের বাড়তি আত্মবিশ্বাস দিবে। সেই আত্মবিশ্বাস ধরে রেখেই ঢাকাকে থামিয়ে দেয়ার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে দলটি। তাদের একাদশেও কোন পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা নেই। উইনিং কম্বিনেশন ধরে রাখতে চাইবেন মাশরাফিও।

নজর থাকবে যাদের ওপরঃ

ক্রিস গেইল (রংপুর)- 

বিপিএলের প্রথম দুই ম্যাচে খেলতে পারেন নি অনাপত্তিপত্র না পাওয়ার কারণে। কুমিল্লার বিপক্ষে ফিরেছেন মাত্র ১ রানে, তাই ঢাকার বিপক্ষে গেইলের লক্ষ্য থাকবে বড় ইনিংস খেলার। সেই সঙ্গে গেল বারের ফাইনালে ১৪৬ রানের ইনিংস তাঁকে বাড়তি আত্মবিশ্বাস দিবে। তাই অধিনায়ক মাশরাফি অবশ্যই চেয়ে থাকবেন ক্যারিবিয়ান এই হার্ড হিটারের ব্যাটের দিকে। 

হজরতউল্লাহ জাজাই (ঢাকা)- 

প্রথম বারের মত বিপিএল খেলতে এসেই সবার নজর কেড়ে নিয়েছেন আফগান এই তরুন ব্যাটসম্যান। দুই ম্যাচে দুটি ফিফটি হাঁকানো এই ব্যাটসম্যান দুই ম্যাচেই হয়েছেন ম্যাচ সেরা। সেই সঙ্গে দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছেন প্রত্যেক ম্যাচেই। তাই রংপুরের বিপক্ষে তাঁর ব্যাটে আস্থা রাখতে চাইবে ঢাকা। 

রংপুর রাইডার্স স্কোয়াডঃ

মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), নাজমুল ইসলাম অপু, মোহাম্মদ মিঠুন, শফিউল ইসলাম, সোহাগ গাজী, ফরহাদ রেজা, মেহেদি মারুফ, নাহিদুল ইসলাম, নাদিফ চৌধুরী, আবুল হোসেন রাজু, ফারদিন হোসেন অনিক, ক্রিস গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্স, অ্যালেক্স হেলস, রবি বোপারা, রাইলি রুশো, বেনি হাওয়েল, শন উইলিয়ামস এবং শেলডন কট্রেল।

ঢাকা ডায়নামাইটস স্কোয়াডঃ 

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), রুবেল হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, রনি তালুকদার, শুভাগত হোম, কাজী অনিক, মিজানুর রহমান, আসিফ হাসান, শাহাদাত হোসেন রাজিব ও নাঈম শেখ, সুনিল নারিন, রোভম্যান পাওয়েল, কাইরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল, হজরতউল্লাহ যাজাই, অ্যান্ড্রু ব্রিচ, ইয়ান বেল।

বিডি২৪লাইভ/এসএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: