প্রচ্ছদ / BPL 2019 / বিস্তারিত

সম্পাদনা: আমিনুল ইসলাম রোমান

ডেস্ক এডিটর

মিরপুরে দর্শকদের বিক্ষোভ

১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৫৬:৫৪

ছবি: ইন্টারনেট

দর্শকে ভরপুর গ্যালারি, জমজমাট ম্যাচ আর চার-ছক্কার ফুলঝুরি। কিছুই ছিল না বিপিএলের শুরুতে। অবশেষে আট ম্যাচ পর প্রাণের স্পন্দন। শুক্রবার ঢাকা ডায়নামাইটস-রংপুর রাইডার্সের ম্যাচে মাঠে দর্শক-উন্মদনা পাল্টে দিয়েছে শেরই বাংলার রূপ। দর্শক আগমনে একটু হলেও রঙ ফিরে পেয়েছে চলমান আসর।

এবারের আসরের প্রথম দর্শকে টইটম্বুর গ্যালারিও খুব একটা সুখকর হল না বাংলাদেশ বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের জন্য। এদিন অন্য রকম বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে তাদের। টিকিট না পেয়ে বিক্ষোভ জানিয়েছেন কয়েকশ দর্শক।

বিপিএলে এবার শুরু থেকেই কালোবাজারিদের কাছে টিকিট বিক্রির অভিযোগ আছে। শুক্রবারের আগ পর্যন্ত ৮টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হলেও কোনো ম্যাচেই দর্শক উপস্থিতি চোখে পড়ার মত ছিল না। কিন্তু টিকিট নিয়ে হাহাকার ঠিকই ছিল। যারা মাঠে গিয়েছেন তাদের বেশিরভাগই কালোবাজারির কাছ থেকে চড়া মূল্যে টিকিট কিনেছেন।

শুক্রবার ছুটির দিনে হোম অব ক্রিকেটের গ্যালারিতে ছিল না তিল ধারণের ঠাই। টিকিটের ঘাটতি তো ছিলই তারওপর মাঠে আসা দর্শকরা তুলেছেন কালোবাজারির অভিযোগ। কয়েকজন দর্শকের অভিযোগ, গত কয়েক দিনে দ্বিগুণের মতো দামে টিকিট বিক্রি করেছে কালোবাজারিরা। আর আজ টিকিটের চাহিদা বুঝতে পেরে তারা নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি দামে টিকিট বিক্রি করছেন।

গত ৫ জানুয়ারি দর্শকশূন্য গ্যালারিতে শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ষষ্ঠ আসর। তারকায় ভরপুর দলগুলোর পারফরম্যান্সও ছিল একপেশে। ডিআরএস নাটক, বাজে সম্প্রচার আর ভুলেভরা উপস্থাপনায় টুর্নামেন্টটি দেখার আগ্রহ হারিয়েছে ভক্তসমাজ। ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত আট ম্যাচ শেষ হলেও দর্শকের ছিঁটেফোটাও ছিল না হোম অব ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। যার জন্য দর্শক টানতে সময় পরিবর্তনসহ নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করে আয়োজকরা।

শুক্রবারের ম্যাচ দিয়ে উন্মাদনা ফিরেছিল এবারের বিপিএলে। আর এমন দিনেই তারা এক পশলা হতাশা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: