প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

পৌষ মেলা

১২ জানুয়ারি ২০১৯ , ০৫:৩২:০০

ছবি: প্রতিনিধি

শেরপুর জেলা শহরের নবীনগর ছাওয়াল পীরের দরগা সংলগ্ন মাঠে শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) দিনব্যাপী ঐতিহ্যবাহী পৌষ মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৬৫ বছরের ধারাবহিকতায় নবীনগর এলাকাবাসীর উদ্যোগে প্রতিবছরের মতো এবারও এ পৌষ মেলার আয়োজন করা হয়। এ মেলায় গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী ‘গাঙ্গি’(কুস্তি) খেলা ছাড়াও ঘোড়দৌড়, ও সাইকেল রেস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

‘চে..লে..লে..লে..ঢুই, ‘চে..লে..লে..লে..ঢুই..ঢুই’-ধ্বনিতে হাঁক চলে গাঙ্গীবীরের হাত ধরে তার প্রতিদ্বন্দ্বী খুঁজতে। কেউ একজন এগিয়ে এলে তার সঙ্গে চলে ওই গাঙ্গীবীরের ‘গাঙ্গী’ খেলা। তিন মিনিটের গাঙ্গী খেলায় যিনি জয়ী হন তাকে নিয়ে হাত ধরে আবারও একইভাবে হাঁক ছেড়ে খোঁজা হয় পরবর্তী চ্যালেঞ্চার। এভাবেই একের পর একজন গাঙ্গীবীরের প্রতিদ্বন্দ্বীতার মধ্য দিয়ে নির্ধারিত হয় ‘গাঙ্গী’ খেলার চূড়ান্ত বিজয়ীকে।

মেলায় বিভিন্ন পিঠা ও বাংলার ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন মজাদার খাবারের দোকান বসে। মৃৎশিল্পীদের সুনিপুণ হাতে তৈরি বিভিন্ন ধরনের খেলনা ও তৈজসপত্র ছাড়াও শিশুদের বিভিন্ন ধরনের খেলনা, মেয়েদের প্রসাধনী ও চুড়ি-মালা, গৃহস্থালি বিভিন্ন আসবাবপত্রের পসরাও সাজিয়ে বসেন দোকানীরা।

এছাড়া গ্রামীণ ঐতিহ্যের চিনির তৈরি সাজ, উরফা, কদমা, বাতাসা, নিমকি কালাই, খুরমা, ঝুরি, মিষ্টি এবং বিভিন্ন মুখরোচক খাবারের দোকানও বসে। শিশু-কিশোর ও তরুণ-তরুণী থেকে শুরু করে সব বয়সের মানুষের উপচেপড়া ভিড়ে পৌষ মেলা হয়ে উঠে জমজমাট ও প্রাণবন্ত।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: