ভোটে বিএনপির জনপ্রিয় প্রার্থীদের বাদ পড়ার কারণ জানালেন পলক

২২ জানুয়ারি ২০১৯ , ০১:৩৪:২১

ছবি: ইন্টারনেট

ভোটের আগে একশ জায়গায় বিএনপির উপজেলা চেয়ারম্যানদের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল কিন্তু তাদের পদত্যাগপত্র গৃহীত না হওয়ায় বিভিন্ন জায়গায় বিএনপির উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী যারা ছিলেন তারা নির্বাচনে অযোগ্য হয়েছেন। যার ফলে দেড়শ আসনে প্রার্থীশূন্য হয়ে পড়ে বিএনপি। এর সাথে আওয়ামী লীগের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশনের এক টকশো অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন পলক।

এ সময় তিনি আরও বলেন, এমপি প্রার্থীরা মনোনয়ন পাননি এটা তো আমাদের দোষ না। বিএনপির রাজনৈতিক কৌশল কি হবে। তারা কিভাবে প্রচারণা চালাবেন, তারা কি করবেন? তাতো আমরা দেখতে পারি না।

পলক বলেন, ২০০৮ সালে ৯৩ শতাংশ ভোট কাস্টিং হয়েছিল আর এবার কাস্টিং হয়েছে ৯০% ভোট। এই ভোটের সংখ্যা কোন আসনে ৮০ শতাংশ আবার কোন আসনে ৯৫ শতাংশও হতে পারে। কম বেশি হওয়াটাই স্বাভাবিক। শহরে সিটি করপোরেশনের ভোট একটু কম পড়ে গ্রামের দিকে একটু বেশি পড়ে। তাই আমি বলবো বিএনপির ভোট কারচুপির অভিযোগ অযৌক্তিক।

তিনি বলেন, নির্বাচনের পরদিন থেকেই দেশে স্বাভাবিক একটা পরিস্থিতি চলে এসেছে এবং সরকারের প্রতি, জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি বিশ্বাস এবং ভালোবাসার এটাই কিন্তু প্রমাণ। কারণ জননেত্রী শেখ হাসিনা শুধু দলের নয়, উনি দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং অভিভাবক হিসেবে ওনার মানবিক নেতৃত্ব দিয়ে মানুষের মন জয় করেছেন। আমি বলব এতে প্রধানমন্ত্রীকে আমাদের সহযোগিতা করা উচিত।

তিনি আরও বলেন, একটা জিনিস খেয়াল রাখতে হবে, যেহেতু প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার পাশে প্রশাসন, গোয়েন্দা সংস্থা ও জনগণ সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়েছে- জাতির মধ্যে একটা ঐক্য সৃষ্টি হয়েছে। তাই সবারই উচিত এই ঐক্যকে সহযোগিতা করা।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে/এমআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: