প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

শাহাদাত হোসেন রাকিব

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

সচিবালয়ে তথ্যমন্ত্রী

শেখ হাসিনার সরকার গণমাধ্যম বান্ধব সরকার

২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৩২:৩২

ছবি : প্রতিনিধি।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, যারা সংবাদপত্রে কাজ করেন তাদের বেতন-ভাতা যাতে নিশ্চিত হয় সেই লক্ষ্যে আমরা নবম ওয়েজবোর্ড নিয়ে কাজ শুরু করেছি।

এসময় তিনি আরও বলেন মঙ্গলবার আমরা সকল গণমাধ্যম স্টোইকহোল্ডারদের কাছ থেকে বক্তব্য শুনবো এবং সেই অনুযায়ী সিদ্ধান্ত হবে।

মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ওয়েজবোর্ড সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার কমিটির গেজেট হওয়ার পর আমরা সভা আহ্বান করবো। আজকের বৈঠকের আলোচ্য বিষয় এবং সারসংক্ষেপ মন্ত্রিসভার বৈঠকে উপস্থাপন করা হবে।

হাসান মাহমুদ বলেন, এরপরই আমরা নবম ওয়েজবোর্ড বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবো। আমরা বলতে চাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার গণমাধ্যম বান্ধব সরকার। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ গণমাধ্যমের ব্যাপক বিকাশ হয়েছে। বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যাবহারকারীর সংখ্যা ছিল ৮ লাখ আর এখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা হচ্ছে ৯ কোটি। বর্তমানে যা একশ গুণেরও বেশি।

তিনি বলেন, গণমাধ্যমের বিস্তৃতির সঙ্গে সঙ্গে গণমাধ্যম কর্মীদেরও প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে এবং অভিজ্ঞ সাংবাদিকরা গণমাধ্যমে যুক্ত হয়েছে। সুতরাং সবকিছুরই বিস্তৃতি ঘটেছে।

সাংবাদিক বন্ধুরা আমাকে বলেছেন, নবম ওয়েজবোর্ডে শুধুমাত্র সংবাদপত্রকে সংযুক্ত করা হয়েছে। এখানে টেলিভিশন সংবাদ কর্মীরা নেই। এই বিষয়গুলো নিয়েও আমরা আলোচনা করবো। যোগ করেন তথ্যমন্ত্রী।

হাছান মাহমুদ বলেন, সাত সদস্যের মন্ত্রীসভার কমিটি হয়েছে। নতুনভাবে মন্ত্রিসভা গঠিত হওয়া এ কমিটি করা হয়। এই কমিটি সোমবারের মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কমিটির প্রস্তাব মন্ত্রিপরিষদ সভায় তোলার সঙ্গে সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী তার অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী। এজন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক নেতা সাবান মাহমুদ, সোহেল হায়দার চৌধুরী, মোল্লা জালাল, আবু জাফর সুর্ষ্য প্রমুখ।

বিডি২৪লাইভ/এসআর/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: