প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

অনির্দিষ্টকালের ছাত্র ধর্মঘট

ছাত্রীনিবাসে ঢুকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা, মিষ্টি খেয়ে প্রক্টরের সমঝোতা!

২৪ জানুয়ারি ২০১৯ , ১২:৫২:০০

ছবি : প্রতিনিধি

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা প্রদানে ব্যর্থতার অভিযোগ এনে প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগের দাবিতে অনির্দিষ্ট কালের ছাত্র ধর্মঘট পালন করছে শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) থেকে ক্যাম্পাসের প্রশানিক ভবনসহ বিভিন্ন ভবনে তালা লাগিয়ে এ কর্মসূচী পালন করছে তারা। বুধবার চলছে ২য় দিন। এ দিকে বুধবার পাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও ধর্মঘটের কারণে তা স্থগিত করা হয়।

কর্মসূচীতে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা জানায়, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় আসিফ ইকবাল চিন্ময় নামের এক বখাটে শুক্রবার রাতে শহরের রাধানগর মহল্লার একটি ছাত্রী নিবাসে ঢুকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। এ সময় ওই বখাটে অন্য ছাত্রীদেরও বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করে।

তারা আরও বলেন, ঘটনার পরপরই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত বখাটের চাচার বাড়িতে বসে সমঝোতা করার চেষ্টা করে মিষ্টি খেয়ে চলে আসেন।

বিষয়টি জানাজানি হলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা পুলিশ প্রশাসনকে চাপ দিলে ওই ঘটনায় রাধানগর বটতলা এলাকার আমিরুল ইসলামের ছেলে অভিযুক্ত আসিফ ইকবাল চিন্ময়কে(২৭) পুলিশ রাতেই গ্রেফতার করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল ইসলাম বাবু বলেন, বিভিন্ন সময় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা স্থানীয় বখাটেদের দ্বারা ছিনতাই, মারধর এমনকি ছুরিকাঘাতের শিকার হলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কার্যকর ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছে।

সম্প্রতি, আমাদের এক বোনের শ্লীলতাহানির ঘটনাও ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা দানে প্রক্টরিয়াল বডি চরম ব্যর্থ হয়েছেন।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবির সাথে আমরাও একাত্মতা প্রকাশ করে অদক্ষ প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগ দাবি করছি। শিক্ষার্থীদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট অব্যহত থাকবে।

পাবিপ্রবি প্রক্টর প্রীতমকুমার দাস সমঝোতার বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, আমি যদি সমঝোতাই করতাম তবে ওই দিন বাদী হলাম কিভাবে। শিক্ষার্থীরা আমাদের সন্তানের মত। ছাত্রী শ্লীতাহানির চেষ্টা করার ঘটনার পর আমি নিজেই থানায় অভিযোগ করি এবং সঙ্গে সঙ্গে আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরবর্তীতে প্রশাসন বাদী হয়ে মামলা রেকর্ড করা হয়। তাদের দাবির বিষয়গুলোর ব্যাপারে কাজ চলছে।

এ সময় তিনি আরও জানান, গতকাল বুধবার পাবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও ধর্মঘটের কারণে তা স্থগিত করা হয়।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: