প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / বিস্তারিত

পথচলার ৮ম বছরে পর্দাপণ জাবির সাংবাদিকতা বিভাগ

২৪ জানুয়ারি ২০১৯ , ০২:০০:০০

ছবি: প্রতিনিধি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ পথচলার ৭ম বছর অতিক্রম করে ৮ম বছরে পর্দাপণ করেছে। এ উপলক্ষ্যে বুধবার দিনব্যাপী এক আড়ম্বরপূর্ণ পরিবেশে একটি প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিভাগটি।

এই আয়োজনের অংশ হিসেবে সকাল সাড়ে দশটায় কেক কেটে ও বেলুন উড়িয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর উদ্বোধন করেন বিশেষ অতিথি সাবেক তথ্য কমিশনার অধ্যাপক ড. গোলাম রহমান এবং দ্য ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনাম।

পরে বিভাগীয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে শুরু হয়ে কলা ও মানবিকী অনুষদ হয়ে নতুন ও পুরাতন প্রশাসনিক ভবন এবং চৌরঙ্গী মোড় প্রদক্ষিণ করে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগে এসে শেষ হয়।

বেলা ১১ টায় বিভাগের সেমিনার কক্ষে বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সালমা আহ্মেদের সঞ্চালনায় বাংলাদেশের সাংবাদিকতার একাডেমিক ও পেশাগত পরিসরে অসামান্য অবদান রাখায় বিভাগের পক্ষ থেকে বিশেষ অতিথিদের আজীবন সম্মাননা-২০১৮ প্রদান করা হয়। এসময় অতিথিদের উদ্দেশ্যে মানপত্র উপস্থাপন করেন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেখ আদনান ফাহাদ, শিক্ষার্থী রাবিকা বিনতে হুমায়ূন এবং সারিকা সাইয়ারা।
 
অনুষ্ঠানে বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব উজ্জ্বল কুমার মন্ডলের সভাপতিত্ব কলা ও মানবিকী অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোজ্জামেল হক, সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের সকল শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
 
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাবেক তথ্য কমিশনার বলেন, বস্তুনিষ্ঠতাই সাংবাদিকতার মূল বিষয়। এটি ছাড়া সঠিক সাংবাদিকতা সম্ভব নয়। গণমাধ্যমে সত্যের অপলাপ ও ফরমায়েশি সাংবাদিকতা কাম্য নয়। অপসাংবাদিকতা সমাজ, দেশ তথা মানব সভ্যতাকে কুলুষিত করে। সত্যের জয় সবসময় নিশ্চিত। তাই সত্য প্রকাশ করা ও সত্য অনুসন্ধান করাই সাংবাদিকতার একমাত্র কাজ।

ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনাম তার বক্তব্যে বলেন, ‘সাংবাদিকতার প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা সবসময় আদর্শ অবস্থা নিয়ে কথা বলে। তবে পেশাগত বাস্তবতা থাকে অন্যরকম। ফলে শিক্ষার্থীরা পেশাগত জীবনে প্রবেশ করে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে এবং এই চ্যালেঞ্জ নিয়েই তাদের কাজ করতে হয়। ফলে একাডেমিক পরিসরেই তাত্ত্বিক আলোচনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের পেশাগত বাস্তবতার সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে হবে।’
আলোচনা সভা শেষে বিভাগের নতুন ওয়েবসাইট 'জেএমএস পেন' (w.jmspen.com)-এর উদ্বোধন করা হয়।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: