আ’লীগের তালিকা চূড়ান্ত হচ্ছে আজ

পুরনো মহিলা এমপি সবাই বাদ পড়ছেন!

০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০৮:২৬:২৬

ছবি: ইন্টারনেট

আবদুল্লাহ আল মামুন: একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে আওয়ামী লীগের সদস্যদের মনোনয়ন চূড়ান্ত হচ্ছে আজ শুক্রবার। এবার গত দশম জাতীয় সংসদের মহিলা এমপিদের প্রায় সবাই বাদ পড়ছেন। আওয়ামী লীগের জন্য নির্ধারিত ৪৩টি পদের মধ্যে ৪০টিতেই নতুন মুখ দেখা যেতে পারে। এই তালিকায় সাংস্কৃতিক অঙ্গনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, পেশাজীবী সংগঠন ও নারী নেত্রীসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা স্থান পাচ্ছেন। আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের একাধিক সদস্যের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

আজ গণভবনে বিকেল সাড়ে ৪টায় আওয়ামী লীগ সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা আহ্বান করা হয়েছে। সভায় মহিলা এমপি পদে দলীয় মনোনয়নের বিষয়ে আলোচনা হবে। এ ছাড়া এই সভায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মনোনয়ন নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে। চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চূড়ান্ত করার ক্ষেত্রে আরো এক দিন অর্থাৎ আগামীকাল শনিবার পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। তবে সংরক্ষিত আসনের জন্য আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীদের তালিকা আজকের সভা শেষে ঘোষণা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ত্যাগী ও দলের জন্য অবদান রয়েছে, এমন প্রার্থীদের সংরক্ষিত আসনে মনোনয়নের জন্য অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।’ যাঁরা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করেছেন, তাঁরাও মহিলা এমপি পদে মনোনয়নের জন্য বিবেচিত হবেন বলেও জানান তিনি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে আওয়ামী লীগ সংসদীয় বোর্ডের এক সদস্য কালের কণ্ঠকে জানান, দশম জাতীয় সংসদের মহিলা এমপিদের মধ্য থেকে সর্বোচ্চ দুই-তিনজনের থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। বাকিরা সবাই বাদ পড়বেন। কারণ তাঁদের অনেকে এমপি হওয়ার পর নিজ নিজ এলাকায় দলীয় কোন্দলে জড়িয়ে পড়েছিলেন। তাঁদের অনেকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অসৎ উপায়ে অর্থ উপার্জনের অভিযোগও রয়েছে। এসব কারণে এবার পুরনোরা বাদ পড়বেন।

তবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন এবং এলাকায় জনপ্রিয়তা আছে, এমন নেতাকর্মীদের গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে জয়ী হতে পারতেন, অথচ কোনো কারণে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া যায়নি, এমন নারী প্রার্থীদের মধ্য থেকে বেশ কজনকে সংরক্ষিত আসনের জন্য মনোনীত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। যথারীতি এবারও তৃণমূলের সর্বাধিকসংখ্যক নারী নেত্রীকে বেছে নেওয়া হয়েছে। যেসব জেলা থেকে গত সংসদে মহিলা এমপি ছিল না সেসব জেলার প্রার্থীদের এবার অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে।

আগামী ৪ মার্চ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ১২ ফেব্রুয়ারি এবং প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসন রয়েছে ৫০টি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির বিজয়ী প্রার্থীরা শপথ না নেওয়ায় ৪৯টি নারী আসনে মনোনয়নপত্র জমা নেওয়া হবে। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ ৪৩, জাতীয় পার্টি চার, বিএনপি এক এবং ওয়ার্কার্স পার্টি, স্বতন্ত্রসহ অন্যরা দুটি আসনে মনোনয়ন দিতে পারবে। সূত্র: কালেরকন্ঠ।

বিডি২৪লাইভ/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: