সম্পাদনা: আমিনুল ইসলাম রোমান

ডেস্ক এডিটর

যে দেশে গেলেই প্রেমিকা হয়ে যান বোন!

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৪:৩৫:১৪

ছবি: ইন্টারনেট

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি আসছে ‌‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’। এর মধ্যেই বিশেষ এ দিনটি ঘিরে সারা বিশ্বে হইচইয়ের অন্ত নেই। দিনটি উদযাপনে প্রেমিক-প্রেমিকারা করেন নানা পরিকল্পনা। তবে বিশ্বে এমন দেশও আছে, যেখানে ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’কে পালন করা হয় ভগিনী দিবস তথা ‘সিস্টার্স ডে’ হিসেবে।

দেশটি বিশ্বাস করে, ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’ বিদেশি সংস্কৃতির অংশ, তাই তা পালন করা একেবারে মানা। বেশি দূরের নয়, বরং প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানই এটা বিশ্বাস করে।

দেশটির ফৈজাবাদের এগ্রিকালচার ইউনিভার্সিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’ তারা পালন করবে ‘সিস্টার্স ডে’ হিসেবে। তাদের ধারণা, এর ফলে দেশে পশ্চিমা প্রভাব কমবে। ছেলেমেয়েরা ইসলামী সংস্কৃতির প্রতি আকৃষ্ট হবে বেশি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ভাইস চ্যান্সেলর লিখেছেন, তাদের সংস্কৃতিতে মহিলারা বেশি ক্ষমতাশালী, মা, বোন, কন্যা ও পত্নী রূপে সম্মান পান বেশি। তার দুঃখ, ছেলেমেয়েরা নিজস্ব সংস্কৃতি ভুলে পশ্চিমা সংস্কৃতিতে বেশি আগ্রহ দেখাচ্ছে।

‘সিস্টার্স ডে’ পালনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ছাপা স্কার্ফ, শাল ও গাউন ছেলেমেয়েদের মধ্যে বিতরণ করা হবে বলেও জানান ভাইস চ্যান্সেলর।

তবে প্রেমিকা আচমকা জোর জবরদস্তিতে বোন হয়ে গেলে কার ভালো লাগে? তাই ‘ভ্যালেন্টাইনস ডে’ আচমকা এভাবে ‘সিস্টার্স ডে’ হয়ে যাওয়ায় ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা খুশি নন মোটেই। যদিও এ ব্যাপারে অনড় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: