‘উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর বর্বর নির্যাতন চীনের’

১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ , ০৯:২০:০০

বন্দীশিবিরে ১০ লাখের বেশি মুসলিমকে বন্দি করে রেখেছে চীন। ছবি: সংগৃহীত

চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর চালানো হচ্ছে নির্মম নির্যাতন। এমন অভিযোগ করে এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছে তুরস্ক।

তুরস্ক চীনের উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর এ নির্যাতনকে ‘মানবতার জন্য লজ্জাজনক’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। একইসঙ্গে জিনজিয়াং প্রদেশে মুসলিমদের আটকে রাখা বন্দি শিবির বন্ধ করে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

শনিবার এক বিবৃতিতে তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মুখপাত্র হামি আকসী জানায়, এটা এখন পরিষ্কার যে চীন ওই বন্দি শিবিরে ১০ লাখের বেশি মুসলিমকে বন্দি করে রেখেছে। তাদের ওপর চীন নির্মম অত্যাচার চালাচ্ছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মুখপাত্র বলেন, এটা এখন আর গোপন নয় যে এক মিলিয়নের বেশি উইঘুরকে জোরপূর্বক গ্রেফতার করা হয়েছে, তাদের বন্দি শিবিরে আটকে চালানো হচ্ছে অত্যাচার এবং মগজ ধোলাইয়ের চেষ্টা।

তিনি আরও বলেন, আমরা চীনা কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি তারা যেন ওই বন্দি শিবির বন্ধ করে দেয় এবং সকলের মৌলিক অধিকারের প্রতি সম্মান করে।

এসব উইঘুর বন্দি শিবিরে আটককৃত দের বেশিরভাগই তুর্কীয় ভাসী। এর আগে উইঘুরদের শিবিরে প্রবেশে অধিকার চেয়েছিল জাতিসংঘ।

তবে চীন উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করেছে। তথ্যসূত্র: বিবিসি, আল-জাজিরা। সূত্র: ইত্তেফাক

বিডি২৪লাইভ/টিএএফ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: