প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

পাকিস্তান পাল্টা তলব করল ভারতীয় কূটনীতিককে

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ , ০৮:১৪:৫২

ছবি: ইন্টারনেট

ভারতের বিশোয়িত বাহিনী সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স বা সিআরপিএফের গাড়িবহরে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করায় সে দেশে নিযুক্ত ভারতের ভারপ্রাপ্ত উপ-হাইকমিশনারকে ডেকে প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামাবাদ। এর আগে হামলায় জড়িত সন্ত্রাসীদের মদদ দেয়ার অভিযোগ তুলে নয়াদিল্লিতে নিযুক্ত পাকিস্তানের হাইকমিশনারকে তলব করেছিল ভারত। এ খবর দিয়েছে পার্সটুডে।

শুক্রবার প্রথমে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পাকিস্তানের হাইকমিশনারকে তলব করে। এর ঘণ্টাকয়েক পর ইসলামাবাদও একই পদক্ষেপ নেয়। তারা ভারতের ভারপ্রাপ্ত উপ-হাইকমিশনার গৌরব আহলুওয়ালিয়াকে তলব করে জানায়, কাশ্মির হামলায় পাকিস্তানের মদদ দেয়ার অভিযোগ ভিত্তিহীন; এর তীব্র নিন্দা করছে পাকিস্তান।

হামলার ঘটনায় ভারতের নিরাপত্তা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে শুক্রবার দেশটির অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, এই ঘটনায় পাকিস্তানের সরাসরি জড়িত থাকার ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট প্রমাণ রয়েছে। তিনি দশকের পর দশক ধরে পাকিস্তানকে ভারতের দিয়ে আসা বিশেষ বাণিজ্যিক সুবিধা বা মোস্ট ফেভারড নেশন কেড়ে নেয়ার সিদ্ধান্তের কথাও জানান।

এই দিনই নয়াদিল্লিতে পাকিস্তানের হাইকমিশনার সোহেল মাহমুদকে তলব করে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিজয় গোখলে কাশ্মিরে হামলায় মদদ দেয়ার তীব্র প্রতিবাদ জানান।

তবে কয়েকঘণ্টা পর পাল্টা ভারতের ভারপ্রাপ্ত উপ-হাইকমিশনারকে তলব করে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে হামলায় পাকিস্তানের জড়িত থাকার অভিযোগ ইসলামাবাদ প্রত্যাখ্যান করছে। তবে এই হামলার নিন্দাও জানাচ্ছে পাকিস্তান।

এদিকে, জার্মানি সফররত পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের অভিযোগ প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে বলেন, “প্রথম দিন থেকেই আমরা ভারতসহ সব প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক বজায় রাখতে চাই।” তিনি বলেন, সহিংসতা সরকারের নীতি নয়।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে কাশ্মিরের পুলওয়ামা জেলার অবন্তিপুর এলাকার গোরিপুরে বড় ধরনের একটি বিস্ফোরণে সিআরপিএফ’র ৪৪ সদস্য নিহত হয়। হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জইশে মুহম্মদ।

বিডি২৪লাইভ/এমআর

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: