প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

ক্লাস-পরীক্ষার দাবিতে পাঁচ ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ , ০৯:৩৯:০০

ছবি: প্রতিনিধি।

দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) ক্লাস- পরীক্ষার দাবিতে সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত দিনাজপুর-ঢাকা, দিনাজপুর-পঞ্চগড় মহাসড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষার্থীরা। এর আগে শিক্ষার্থীদের প্রতিরোধের ঘোষণার মুখে ২০১৯ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক শ্রেণির ওরিয়েন্টেশন স্থগিত করেছে প্রশাসন। 

ক্লাস-পরীক্ষা চালুর দাবিতে শিক্ষার্থীরা শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯ টায় প্রশাসনিক থেকে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে।

এ সময় বিক্ষোভ মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রধান প্রধান সড়ক ও দিনাজপুর-ঢাকা, দিনাজপুর-পঞ্চগড় মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বাসবভনে সংক্ষিপ্ত অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে সকাল ১০ টায়  দিনাজপুর-ঢাকা, দিনাজপুর-পঞ্চগড় মহাসড়কে অবস্থান নেয়। বিকাল ৩ টা পর্যন্ত তারা অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। এতে করে সৃষ্টি হয় দীর্ঘ যানজোট। দুই পাশে শতশত যানবাহন আটকা পড়ে। এতে সাধারণ মানুষের দূর্ভোগে বেড়ে যায়। রবিবার আবারো তারা অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে কলে জানায়।

এর আগে গত শুক্রবার(১৫ ফেব্রুয়ারি) ক্লাস-পরীক্ষা চালুর দাবিতে ওরিয়েন্টেশন বন্ধ করে দেওয়ার দাবি জানায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই ও বিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের এমন দাবির প্রেক্ষিতে ১৬ ফেব্রুয়ারী শনিবারের ২০১৯ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক শ্রেণির ওরিয়েন্টেশন স্থগিত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এরও আগে বৃহস্পতিবার ক্লাস-পরীক্ষা চালুর দাবিতে প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে ওরিয়েন্টেশন বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় শিক্ষার্থীরা বিশ^বিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনসহ সব ভবনে তালা দিয়ে অনিদিষ্ট কালের জন্য কার্যক্রম বন্ধের নোটিশ ঝুলিয়ে দেয়। এ নিয়ে  শুক্রবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনায় বসেন দুই অনুষদের শিক্ষার্থীরা। কিন্তু কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয় আলোচনা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, নভেম্বর থেকে আমাদের ক্লাস-পরীক্ষা হচ্ছে না, আমরা চাই না নবাগত শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে চলমান নোংরা রাজনীতি দেখুক বা পড়–ক। এজন্য আমরা উপাচার্য মহোদয়ের কাছে আবেদন করেছি এবং ওরিয়েন্টেশন স্থগিত হয়েছে।

তারা আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করার পর ওরিয়েন্টেশনের আয়োজন করবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. সফিউল আলম বলেন, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অনুরোধ ও তাদের আন্দোলনের প্রতি সম্মান দিয়ে ওরিয়েন্টেশন স্থগিত করা হয়েছে। ওরিয়েন্টেশনের পরবর্তী তারিখ পরে জানানো হবে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ন্যায় সংগত।

উল্লেখ, ১৪ নভেম্বর থেকে সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত সহকারী অধ্যাপকগণ কর্মবিরতি পালন করে আসছিল। আন্দোলনরত শিক্ষকের সঙ্গে একাত্মা প্রকাশ করে ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরাম। এতে সিএসই, বিজ্ঞান ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ আছে। পদোন্নতি প্রাপ্ত সহকারী অধ্যাপকগনকে বর্তমানে কোন কর্মসুচি পালন করতে দেখা যায় না। কিন্তু প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের শিক্ষকরা ক্লাসে না ফেরায় সিএসই ও বিজ্ঞান অনুষদে কোন ক্লাস ও পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছেনা।

বিডি২৪লাইভ/এজে

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: